gold312

'যেখানে সেখানে মল ত্যাগ করিবেন না' স্বাস্থ্য সচেতন শ্লোগান একটি।
হে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর আপনাদের এই শ্লোগান আর দিতে হবেনা,লাগাতে হবেনা পোষ্টার।
কারন মল থেকে পাওয়া যাবে সোনা,রুপা 🙂

যেখানে সেখানে কেন মল ত্যাগ করবো?কমোডেও করবো না,এর মধ্যেই তো আছে সোনা রুপা 🙂 অত্যন্ত যত্ন সহকারে আমার মল সংরক্ষন করবো।বাসার সবচেয়ে দামী পাত্রে সংরক্ষন করতে হবে।আচ্ছা সংরক্ষন করে ডিপ ফ্রিজে রাখলে কেমন হয়? একটি  বিশাল সাইজের ডিপ ফ্রিজ কিনতে হবে।

খবর হচ্ছে'মার্কিন গবেষকেরা সম্প্রতি দাবি করেছেন, মানববর্জ্য বিশেষভাবে পরিশোধন করে সোনা, রুপার মতো মূল্যবান উপাদান পাওয়া সম্ভব, যা ইলেকট্রনিকস ও সংকর ধাতু হিসেবে ব্যবহার করা যাবে। বর্তমানে গবেষকেরা মানববর্জ্য থেকে মূল্যবান ধাতু শনাক্ত করার এবং তা উদ্ধার করার উপায় নিয়ে গবেষণা চালিয়ে যাচ্ছেন।'

এবার ভাবুনতো কি হতে পারে ভবিষ্যতে?কোন মানুষ বেকার থাকবেনা।প্রতিটি মানুষ হয়ে যাবে একটি সোনার খনি।যে যত মল ত্যাগ করবে সে তত মূল্যবান মানুষ হয়ে যাবে।
সজীব তোমার সামনে সুদিন আসছে,আর কেউ বেকার বলতে পারবেনা তোমাকে :D)

আপনি এক বিয়ের দাওয়াতে যাবেন? গিফট নিয়ে নিন একবাটি মল।সুন্দর প্যাকেটে আপনার নাম উপরে লিখে দিন।উপহারের বিবরনে লিখবেন'সোনার র ম্যাটিরিয়েল'। আচ্ছা এরপর কি আর মল কে আর মল বলা হবে? বলা হবে সোনার র-ম্যাটেরিয়াল

আমি অবশ্য সোনা বিক্রি করবো না।বাসার চেয়ার টেবিল খাট প্লেট কাপ সব বানাবো সোনা দিয়ে :D) আহা কত শান্তি 🙂

সজীবের ভবিষ্যত পরিকল্পনাঃ
এই আবিস্কারের সাথে সাথে অত্যন্ত কম মুল্যে চীন থেকে পরিশোধন যন্ত্র চলে আসতে পারে। আমিও বানাতে পারি একটি অত্যন্ত কম মুল্যে।ধরুন ৫০০ টাকায় একটি সোনা পরিশোধন যন্ত্র উৎপাদন করে ফেললাম আমি।হ্যাভি ডিমান্ড হবে।১৬ কোটি মানুষের জন্য কতটি যন্ত্র দরকার হবে? ৩ কোটি পরিবার তো হবেই দেশে তাই না? প্রতি পরিবারে একটি যন্ত্র ধরা যাক।আমি তো মালে মাল হয়ে যাবো \|/

সবার প্রতি অনুরোধ,
আপনার মল সংরক্ষন করুন
নিজের সোনা নিজে ব্যাবহার করুন।

খররটি পড়ুন এখানে

0 Shares

৩০টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ