মানবতা!

তৌহিদ ১১ সেপ্টেম্বর ২০২০, শুক্রবার, ০৮:৪৩:১০অপরাহ্ন রম্য ২৭ মন্তব্য

এদেশে আশ্রিত রোহিঙ্গা সমস্যা নিয়ে নতুন করে কিছু বলার নেই। তাদের আশ্রয় দেয়া থেকে শুরু করে খাবারদাবার, নিরাপত্তা, চিকিৎসায় কাজ করে যাচ্ছে সরকার। তারই অংশ হিসেবে নোয়াখালীর ভাষানচরে নির্মিত অত্যাধুনিক আশ্রয়ণ প্রকল্পে তাদের স্থানান্তরিত করার প্রয়াস ব্যর্থ হতে চলেছে!

এর কারণ হচ্ছে, চল্লিশজন রোহিঙ্গা প্রতিনিধি ভাষানচর পরিদর্শন শেষে তারা বলেছেন এখানে নাকি রোহিঙ্গা বসবাসের অনুপযোগী! তো মানবতা দেখিয়ে যারা একসময় রোহিঙ্গাদের জন্য খাবার, টাকাকড়ি প্রভৃতি দিয়ে সাহায্য করেছিলেন আজ তারা কোথায়? তাদের মানবতা কি শেষ হয়ে গিয়েছে? তারা আজ লুকিয়ে কেন?

আমরা যারা সারাদিন মানবতা মানবতা করে ফেসবুকের নিউজফিড ভর্তি করে ফেলি এখন সময় এসেছে তাদের কাজেকর্মে তা প্রমাণ দেবার। কিভাবে? আমরা রোহিঙ্গাদের মনোমত আরামদায়ক আবাস্থল নিশ্চিত করে এ কাজটি সহজেই করতে পারি।

তবে শুরুটা হতে হবে যোগ্যতার ভিত্তিতে। যেকোন বয়োজ্যেষ্ঠ কর্মকর্তার যেমন একজন কর্মচারীর চেয়ে বেতনভাতা, সুযোগসুবিধা বেশী ঠিক তেমনি আর কি! যারা উচ্চ পর্যায়ের এবং বিলাসবহুল এলাকায় থাকেন প্রথম তাদের এলাকা থেকে রোহিঙ্গাদের আশ্রয় শুরু হবে।

রোহিঙ্গা আশ্রয়ণ শুরু হতে পারে মন্ত্রীপাড়া থেকে। এরপরে বিরোধী দলীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের এলাকা দিয়ে গুলশান, বনানী, ধানমন্ডি, উত্তরা, বসুন্ধরা দিয়ে জেলাশহর গুলোতে বিস্তার পাবে।

তবে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে যে চল্লিশজন রোহিঙ্গা নোয়াখালীর ভাষানচরে গিয়েছিলো তাদের জন্য আলাদা স্যুইট বরাদ্দ থাকবে রেডিসন, রুপসী বাংলা, পূর্বাণী, সোনার গাঁ সহ বিভিন্ন তারকা মোটেলে। হাজারহোক তারা রোহিঙ্গাদের মধ্যে থাকা নেতাগোছের লোকজন।

আমি যেহেতু উত্তরবঙ্গের কোণা কামচায় থাকি ভাগে পড়তে পড়তে আমার এখানে যে কোন টাইপের রোহিঙ্গা আসবে সেটা নিয়েই চিন্তিত। অবশ্য একচেঞ্জ অফার চালু করলে মন্দ হবেনা। ধরুন আমার ভাগের রোহিঙ্গাটাকে আমার খারুস বসের বাসার রোহিঙ্গাটার সাথে অদলবদল করলাম!

অন্যদিকে জীবনে অনেক প্যারা খেয়ে ব্রেকআপ হওয়ার সর্বশেষ প্রদেয় প্যারার প্রতিশোধ হিসেবে যে কেউ তার এক্স বয়ফ্রেন্ড, গার্লফ্রেন্ডের বাসার সাথেও অদলবদল করতে পারেন। এরকম কিছু আইডিয়া নিজেরাই ভেবে নিন। কেউ কেউ যে তার শ্বশুর বাড়ির রোহিঙ্গাটার সাথেও নিজের রোহিঙ্গাকে অদলবদল করবেন তা নিশ্চিত!

রোহিঙ্গা পুনর্বাসন নিয়ে ভিন্নতর কোন আইডিয়া আপনিও মন্তব্যে বলতে পারেন। মানবতার ক্ষেত্রে আপোষহীন থেকে রোহিঙ্গাসেবাকে ব্রত হিসেবে গ্রহণ করুন। মানবতা দেখিয়ে প্রত্যেকে একজন করে রোহিঙ্গাকে নিজেদের বাড়িতে আশ্রয় দিয়ে মানবতার মহানুভবতা দিকে দিকে ছড়িয়ে দিন।

মানবতাকি জয় হো!!

[তথ্যসূত্র – লেখার নীল কালিতে হাইলাইটেড

ছবি- নেট থেকে।]

১৮৯জন ২২জন
0 Shares

২৭টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য