মাধবীমঞ্জরী

প্রদীপ চক্রবর্তী ২১ জুন ২০১৯, শুক্রবার, ০৯:৪৫:৩৫পূর্বাহ্ন কবিতা ১৮ মন্তব্য

কাক ডাকা ভোরে কুসুমকলি কুড়িবার তরে,
যে বংশী বাঁজে আজ নিভৃত কাননে বটবৃক্ষ ছায়াতলে।
তোমারি চিত্তে লাগিছে যে প্রেমের দুল,
রন্ধ্রে বারি তাহার চিত্তে অনুগামী বকুল।

বন্ধু তোমার প্রিয় লতার একটি মুকুলে,
কুড়িয়ে রাখিও মোরে তোমারি বন্দনার স্তুতিতুলে।

মম তব হৃদয় পানে আকুল প্রাণে যে গুঞ্জরি গায়,
চন্দনে ঘিরিত ললাট চোখপানে নাহি দেখিতে পায়।
সবুজ শ্যামলে মেখেছ যারে গ্রন্থি আঁচলে,
সে যে দিবাকরে বর্ণচ্ছটা আলোকোজ্জ্বলে।

স্পর্শতার আহ্বানে খুঁজেছ যারে ভালোবাসার বন্ধনে,
দুচোখ ভরে চেয়ে দেখেছে কি সে তোমার আঁখি পানে।
বন্ধু ‘দিবস রজনীর বন্ধনে নিজেকে হারিয়েছ অষ্টপ্রহর।
ষোড়শী পাবার আশায় প্রহরের পর প্রহর।

অভিসারের শেষে কুঞ্জেকুঞ্জে ফুটেছে যত মাধবীমঞ্জরী।
যাজ্ঞসেনী ছড়িয়েছে আলোক বর্ষণে যত পুষ্প মঞ্জরী।
পত্ররন্ধ্রের গায়ে দিয়েছে যে প্রলেপের আঁচ,
নিভৃত কাননে কুসুমকোমলে সে যে বনলতা আজ।

ভোরের শিশিরে শিশিরে আছে যত পুষ্প মঞ্জুরী,
অপলকের আবছা আলোয় দেখেছ যারে দিবস রজনী সে তো তোমার অন্তর্যামী প্রেমময়ী।

মাধবীমঞ্জরী সাজিয়েছে তাহার নামের চন্দ্রবন্ধনী,
অভিসারের শেষে মনমাঝে বাঁজে প্রেমের মূরতি বংশী।

২৪১জন ১০৫জন
3 Shares

১৮টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য