মহান মে দিবস

সুপর্ণা ফাল্গুনী ১ মে ২০২০, শুক্রবার, ০৩:৪৯:১১অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি ২৩ মন্তব্য

 

যথারীতি আজো শৈবাল কাজে গেলো। আজ পহেলা মে। বিশ্ব শ্রমিক দিবস । ১৮৮৬ সালে যুক্তরাষ্ট্রের শিকাগো শহরের ‘হে’ মার্কেটের শ্রমিকরা উপযুক্ত মজুরি আর ৮ ঘন্টা কাজের দাবিতে আন্দোলন শুরু করে। তাদের দমনে ব্যর্থ হয়ে পুলিশের এলোপাথাড়ি গুলিতে ১১ শ্রমিক নিহত ও অসংখ্য আহত হন। আর গ্রেপ্তার হন অনেকেই যার ফলশ্রুতিতে আন্দোলন চরম আকার ধারণ করে। বিচারের প্রহসনতায় ৬ জন শ্রমিককে ফাঁসি দেওয়া হয়।  এরফলে এই আন্দোলন সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়ে পরবর্তীতে যুক্তরাষ্ট্র সরকার তাদের দাবি মেনে নেয়।১৮৮৯ সালের ১৪ ই জুলাই ফ্রান্সে আন্তর্জাতিক শ্রমিক সম্মেলনে ১লা মে শ্রমিক দিবস ঘোষণা করা হয়। কিন্তু শৈবালের কোনো ছুটি নেই, আট ঘণ্টা ডিউটি কখনো করা হয়নি। কমপক্ষে  দশ বারো ঘন্টা পার না হলে তার কাজ শেষই হয়না। তার কাজটাই যে মানুষের দ্বারে দ্বারে সঠিক খবরটা পৌঁছে দেয়া। তানা হলে যে চাকরি ছেড়ে দিয়ে উপোস থাকতে হবে।

বাংলায় এম.এ. করার পর কোথাও কোনো কাজের ব্যবস্থা করতে পারেনি। ছোটবেলা থেকেই লেখালেখিতে বেশ সুনাম অর্জন করেছে এলাকায়। তারই ফলশ্রুতিতে লেখকদের সাথে ওঠাবসা, চেনাজানা আছে বেশ। তারাই তাকে এই পত্রিকা অফিসের প্রুফ রিডার হিসেবে কাজটা পাইয়ে দেয়। মাঝে মাঝে সম্পাদকের নির্দেশেই ছোটখাটো রিপোর্ট সংগ্রহ করতে যেতে হয়।তানা হলে ছোট ছোট চার পাঁচজন ভাইবোন আর বাবা-মায়ের সংসারে উপোস থাকতে হতো অথবা  রাস্তায় রাস্তায় ভ্যাগাবনের মতো ঘুরতে হতো কারো সাহায্যের আশায়। তিন-চারটা টিউশনি আর পত্রিকা অফিসের কাজের সুবাদে না খেয়ে থাকতে হয় না। এমন পেশার মানুষের বদৌলতে আমরা ঘরে বসে বিশ্বের সব খবর হাতের মুঠোয় পেয়ে যাই। কিন্তু তাদের ন্যায্য মূল্য বা অধিকার কোনোটাই পাওয়া হয়না। যার জন্য আজকের এই শ্রমিক দিবস পালিত হচ্ছে, সবাই আট ঘণ্টা ডিউটি করছে, এই দিনের জন্য প্রতিটি প্রতিষ্ঠান , শ্রমিকরা ছুটি পাচ্ছে সেই শ্রমিক দিবস শৈবালদের মতো পেশার মানুষের কাছে শুধুই বিলাসিতা। ডাক্তার, নার্স, সাংবাদিক, পুলিশ, ডোম, সুইপার-মেথর, নিম্ন-আয়ের লোকজন, ফায়ার সার্ভিসের কর্মীদের শ্রমিক দিবসের তাৎপর্য এভাবেই প্রতিনিয়ত শ্রমের বিনিময়ে দিতে হচ্ছে। শুভ হোক মহান মে দিবস

১৬৭জন ২৯জন
0 Shares

২৩টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য