মধ্যবিত্ত

মাছুম হাবিবী ১ মে ২০২০, শুক্রবার, ০৩:০৭:১৭পূর্বাহ্ন একান্ত অনুভূতি ১৪ মন্তব্য

একটি ছেলের বেকারত্বের কষ্ট কোনো মেয়ে বুঝবেনা। মা-বাবার ছলছল চোখ কতটা আঘাত করে বুকের ভেতর, তা কোনো মেয়ের পক্ষে বুঝা সম্ভব না! কেউ হয়তো আপনাকে অনেক ভালোবাসে, আপনাকে নিয়ে স্বপ্ন দেখে। আর এদিকে আপনি রাষ্ট্রের দেয়া সার্টিফিকেট হাতে নিয়ে কুকুরের মত ঘুরঘুর করছেন ছোট একটি চাকরীর জন্য! কোথাও নিজের যোগ্যতার প্রমাণ করার সুযোগ পাচ্ছেন না। বাসায় গেলে ফ্যামিলির ক্রাইসিস, বোনের স্বপ্ন, ভাইয়ের পড়াশোনা সবকিছু আপনাকে তিলে তিলে ধ্বংস করে দিবে! আপনি দিশেহারা হয়ে পরবেন।।

এবার বলুন তো, আপনার পক্ষে কী কারো স্বপ্ন হওয়া সম্ভব? আপনার পক্ষে কী কারো ভালোবাসার মানুষ হওয়া সম্ভব? নিশ্চয় নাহ? তাহলে আপনার জীবনটা কোথায় গিয়ে দাঁড়ালো? অশ্চিত ভবিষ্যৎ আর বাবা মায়ের মুখে হাসি, কিছুই তো পূরণ করতে পারলেন নাহ। তাহলে আপনার জন্য বেঁচে থাকাটা কতটা কঠিন তা হয়তো ইতিমধ্যে অনুভূব করতে পারছেন। সব ছেলেরা প্রেম কিংবা প্রেমিকার জন্য কাঁদেনা, কিছু ছেলে বেকারত্বের অভিশাপ কাঁধে নিয়ে নিজের দারিদ্রতা গুছানোর জন্য কাঁদে!

একটি মধ্যবিত্ত পরিবারের ছেলের স্বপ্ন হল ‘সে তার মা-বাবা এবং ভাই-বোনদের নিয়ে হাসিমুখে দিনপার করবে। তার পক্ষে কাউকে ভালোবেসে হানিমুনে ব্যাংকক যাওয়ার স্বপ্নটা বাজে স্বপ্ন ছাড়া কিছুই নয়! মধ্যবিত্তদের স্বপ্নগুলোও ক্ষুদ্র হয়। তাদের সুখ আহ্লাদ বলতে নিজের ছোট পরিবার। দিনশেষে মা বাবার হাসিমুখটা দেখার জন্য, একটা মধ্যবিত্ত ছেলে সবকিছু করতে পারে। ভালোবাসা কিংবা বন্ধুত্ব সবকিছুই তার পরিবার। মধ্যবিত্তদের সবাই পছন্দ করে, কিন্তুু ভালোবাসে খু্ব কম সংখ্যক মানুষ। তাই মধ্যবিত্তদের ভালোবাসাগুলোও ভালো একটা চাকরীর পাওয়ার মতই ঐশ্বরিক ফল!!

 

বিঃদ্রঃ দীর্ঘদিন পা ব্লগে ফিরলাম। আশা করি এখন থেকে নিয়মিত ব্লগে পাবেন ইনশাআল্লাহ্

৬৯৪জন ৬০৩জন
12 Shares

১৪টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য