মধুরিমাঃ তার তথাকথিত প্রেমিক ও আমি

ইসিয়াক ২৯ ডিসেম্বর ২০১৯, রবিবার, ০৮:৪০:১৮অপরাহ্ন কবিতা ১৮ মন্তব্য

নিত্যদিনের মতো আজো মধুরিমা এসে দাড়ালো,
ঝুল বারান্দায়।
চুল শুকানোর বাহানায় হয়তো।

সদ্য জলে ভেজা আদ্র্র মুখ,
অলৌকিক মোহময়ী চঞ্চলতা ছুঁয়ে,
তার রূপকে করেছে স্বর্গীয় আভাদীপ্ত।
কারো কারো রূপে তীব্র টগবগে প্রানবন্ত ভাব থাকে,
অহংকার থাকে
আবার
আদ্যাশক্তি ছুঁয়ে যায় অভিন্নতা।
ঠিক তেমনি বর্ণাঢ্য মধুরিমা!

আমি আড়ালে জানালার গ্রিল ঠোঁটে ধরে ,
চোখে দেখে নয়ন সার্থক করি।
এবং
তৃষ্ণার্ত চাতকের মতো চেয়ে ই থাকি মানসী পানে।

মধুরিমার এসবে ভাবনা নেই যেন,
তার প্রেম পরিণয় সব বুঝি মনের গভীরে লুকানো।
সদা অবিনীত,গৌরবান্বিত ,অবিমিশ্র।
সে জানে শত শত অপ্রতিভ যুবক তাকে দেখে প্রতিনিয়ত,
যেমন এই দুপুরে ও তেমনি।
শীতে রোদ পোহানোর মত প্রেম পোহাচ্ছে তারা।

নিচের পৃথিবীকে সে বরাবরই অহংকারী চোখে চায়।
মাঝে মাঝে তাকিয়ে দেখে,
যুবকগুলোর দিকে হয়তো করুণা ছুঁড়ে দেয় দৃষ্টির চাহনি রেখে,
এবং তৎক্ষণাৎ আবার গ্রীবা উচু করে সে অহংকারী পাথরের মূর্তির মতো ভাবলেশহীন
আকাশের দিকে চেয়ে রয় ।

আর এদিকে পাণিপ্রার্থী যুবকেরা সিগারেটের বর্ণিল ধোয়ায় নিঃশ্বাস ছেড়ে,
নিকোটিন পুড়িয়ে,
সেই ধোয়া গোল গোল করে পাকিয়ে উড়িয়ে দেয় আকাশে,
চলে অবিরত আর অনবরত,
শুধু রাতের অপেক্ষায় প্রহর গোনে,
যখন সে স্বপ্নে ধরা দেবে অবলীলায়।
রূপকথার রাজকন্যা হয়ে!!
আর
আমি শুধু দীর্ঘশ্বাস ছাড়ি ……।

২৬৬জন ১৬৯জন
5 Shares

১৮টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য