ভয়!

রোকসানা খন্দকার রুকু ৭ মার্চ ২০২১, রবিবার, ০৮:০৬:৩৫অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি ১৮ মন্তব্য

জীবন নাকি চলে হিসেবে,প্যাচে। আর অনেক উপরে উঠতে গেলেও একটু কৌশলী হতে হয়। সময় জ্ঞান থাকতে হয়, জীবন নিয়ে জটিল হিসেব নিকেষ করতে হয়। উপরে ওঠা কাকে বলে,সে ব্যাখ্যায় না যাই, কারণ আমি এটা বুঝি না।

কারও সহযোগীতায় নির্দ্ধিধায় হাত বাড়ানো,পাশে দাঁড়ানো আমার অভ্যাস। আর সেটা যদি সুসম্পর্কের ক্ষেত্রে হয় তাহলে তো কোন কথাই নেই। মনপ্রাণ ঢেলে দেবার চেষ্টা করি। যার আগে পিছে কোন প্রশ্নবোধক থাকে না। কিন্তু সমস্যা হল, হিসেব ছাড়া চলি বলেই বোধহয় সবসময় বাঁশের মধ্যেই থাকি! আমার ধারনা আমি মানুষ হিসেবে অতি উচ্চমানের না বলেই এমনটা হয়। কিংবা আমার মধ্যে কোন জটিলতা নেই বলেই এমন হয়।যা ভালো লাগে,ভালোবাসি তা মন দিয়ে করি। তাতেই নিমগ্ন থাকি।

আজকাল সবাই জটিলতা পছন্দ করে। মনের ভেতরে সব রেখেটেখে নিজের প্রয়োজনে স্বার্থপর অভিনয় করে। বেশি কষ্ট হয় যখন এটা বুঝতে পারি।আমি খুব কম মানুষের সাথে মিশি। কারন মিশলে একটু বোধহয় বেশি মিশে ফেলি তখন তার কাছে সেটা বিরক্তিকর কিংবা বাড়াবাড়ি মনে হয় । একসময় সে কেটে পরে, এটা আবার আমি নিতে পারি না।অনেক কষ্ট হয়।

সকল সম্পর্কে ভুল- ত্রুটি থাকেই! আমি শতবার ক্ষমায় বিশ্বাসী। আমি মনে করি ছোট ছোট ভুল থেকে সম্পর্ক আবার নতুনত্ব পায়। এমন ভুলে কেউ কেউ প্রতিজ্ঞা করে বসে আর পুনরুদ্ধার না করার! তবে খুব ইচ্ছে করে একটা শক্ত সম্পর্ক জড়িয়ে বলুক তুমি নিশ্চিন্তে চল আমি তোমার পাশে আছি। শত ভুলেও কখনো ছেড়ে যাব না। মুহুমুহু করতালিতে ভরিয়ে তুলুক আমার চারপাশ।

বাইরে থেকে আমি ভীষন শক্ত-পোক্ত মানুষ এমনটা  মনে হলেও আসলে আমি একটা ভীতু, আবেগী, নরম মনের মানুষ। আমার সাথে কেউ অন্যায় করছে জেনেও প্রতিবাদ করার সাহস আমার নেই! বরং লুকিয়ে পরি, বুকফাটা কান্নাটাও বাথরুমের আর্তনাদে পরিনত হয়।

চিন্তাচেতনায় আমি অন্যদের থেকেও অনেক পিছিয়ে। অন্যের মত চলতে চলতে ভাবতে পারি না। তবে কারও সাফল্যে প্রতিহিংসা বা কম্পিটিশন নেই। আমি মনে করি আমরা সবাই সেরা ও শ্রেষ্ঠ।

বুদ্ধিমানেরা কখনো সহজে ভালোবাসি বলে না তেমনি সহজে কোন কমিটমেন্ট বা দায়িত্বও নেয় না। সম্পর্কের পাকাপোক্ত অবস্থায় নিয়ে যায় না। এতে অনেক ত্যাগ থাকে হয়ত তাই তারা এডিয়ে চলতে পছন্দ করে।এজন্যই এদের জীবনে রিস্ক অনেক কম।তবে ভোগ দখলে এগিয়ে থাকে।

এত কথা বলার কারন দায়িত্ব! ঈদানিং দায়িত্ব নিতে ভয় হয়, কারন আমি লুজার টাইপ মানুষ, দায়িত্ব নেবার মত যোগ্যতা নেই আমার। সম্মানিত  হবার মত কোন কিছু গ্রহণে ভীষন ভয় পাই। ভালোবাসা নিতেও ভয় পাই। কারন ‘ঘর পোড়া গরু সিঁদুরে মেঘে ভয়ই পায়”। বেছে বেছে ধুলো মারিয়ে চলতে চলতেই কোন কারন ছাড়াই পিছলে গেলে ক্ষমা পাবার অযোগ্য হব। তখন পিছল অপরাধে একা পুডে মরার যন্ত্রনায় এ বয়সে ছটফট হবে বড্ড বেমানান। বালিশের গন্ধ শুকে শুকে নির্ঘুম রাত কাটানোর পর কারও কাছে বলাও অন্যায়।চলবে সুখী সুখী ভাব করে কাটাবার ব্যর্থ প্রয়াস। যেটা বড়ই কষ্টকর! আর বয়স যত বাডে শরীরের অন্যান্য অঙ্গ- প্রত্যঙ্গের মত মনটাও দূর্বল হয়ে পরে। বেশি কষ্ট নিতে পারে না। শুধু যার যায় সেই বোঝে। ভেতরটা পুডে পুডে কয়লা, গন্ধ নেবার কেউ নেই!

আর অযথা আবেগী মানুষকে দিয়ে কিছু হয়ও না। সব কিছুতে একটা অতি সিরিয়াস ভাব থাকা জরুরী!!!!

 

ছবি- নেট থেকে।

৪৯৩জন ২২২জন
37 Shares

১৮টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য