ভাস্কর্য নাকি মুর্তি : আসুন জানি প্রকৃত ইতিহাস (প্রথম অংশ)

মূর্তি নাকি ভাস্কর্য; ভাস্কর্য নাকি মূর্তি। অনেক হয়েছে সংজ্ঞায়ন। তাই সেদিকে না গিয়ে প্রারম্ভেই আলোকপাত করার ইচ্ছা রাখি, সত্য-মিথ্যার রাস্তা ভাগ হওয়ার ইতিহাস, কিভাবে এল মূর্তি ও মূর্তিপূজা তার বিশদ আলোচনা। তার আগের কাহিনীইবা কি- সে ব্যাপারেও ধারাবাহিক আলোকপাত থাকছে এই নিবন্ধে।

প্রাথমিক পর্যায়ে “তামাছিলা” শব্দটির অর্থ জানব বিভিন্ন অভিধানের আলোকে-

“তামাছিলা” শব্দের অর্থ :

মূর্তি, প্রতিমা, প্রতিমুর্তি, প্রতিচ্ছবি, আকৃতি (আল মু’জামুল ওয়াফী- পৃষ্ঠা নং-320)

মুর্তি, প্রতিমুর্তি, ভাস্কর্য (আল আকমুস আল ইসতিহালি- পৃষ্ঠা নং- 194)

মূর্তি, নকশা, ছবি (আল মুরাদিফ-62 পৃষ্ঠা)

ভাস্কর্য (বাংলা-ইংজেরী-আরবী ব্যবহারিক অভিধান-পৃষ্ঠা নং-562)

মুর্তি-(বাংলা-ইংজেরী-আরবী ব্যবহারিক অভিধান-পৃষ্ঠা নং-605)

পুনশ্চ: “তামাছিলা” শব্দটির অর্থ জানব বিভিন্ন কিতাবের আলোকে-

“তামাছিলা” শব্দের অর্থঃ

“তাছ্বাবিরু, তামাছিলু, তাছ্বালিবু”- শব্দত্রয়কে বহুবচন ও এদের একবাচনিক অর্থ যথাক্রমে ছবি, মূর্তি ও ক্রুশযুক্ত ছবি মর্মে উল্লেখ করা হয়েছে।(ছবি ও মূর্তি : লেখক- মোহাম্মদ আসাদুল্লাহ আল গালিব)

“তামাছিলা” শব্দটি “তিমছালুন” এর বহুবচন। অর্থ প্রতিমা, মূর্তি। [তাফসির আহসানুল বয়ান-পৃষ্ঠা নং-748, টীকা-93]

তাফসির ইবন কাসির এর 16 তম খন্ডের 43 নং পৃষ্ঠায় “তামাছিলা” শব্দের অর্থ বলা হয়েছে “ছবি”।

“তামাছিলা” শব্দের অর্থ তামা কিংবা কাঠের তৈরী মূর্তি বা ভাস্বর্য।– [তাফসির ফি যিলালিল কোরআনের 16 তম খণ্ডের 223 পৃষ্ঠায়]

 “তামছিল” এর বহুবচন “তামাছিল”। এর অর্থ ভাস্কর্য. মূর্তি, বিগ্রহ, প্রতিমা। আর এখানে ভাস্কর্য বলে বুঝানো হয়েছে পিতল, তামা, সিসা ও মর্মর প্রস্তর নির্মিত মূর্তিকে। [তাফসির মাজহারি নবম খণ্ডের 601 পৃষ্ঠায়]

“তামাছিলা” শব্দটি তামাছিল এর বহুবচন। অর্থ চিত্র, বিগ্রহ। [তাফসির মাআরেফুল ক্বোরআন- (সংক্ষিপ্ত) পৃষ্ঠা নং-1105]                 

 [বি.দ্র.“তামাছিলা” শব্দটি পবিত্র আল-কুরানের 22 তম পারার 34 নং সূরা সা’বা-র 13 নং আয়াতে উল্লেখ রয়েছে।] (চলবে)

৩২০জন ২০১জন
0 Shares

একটি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য