একছিলো পরী –
পরীটার ডানা ছিলো লুকোনো,তাই সবাই তাকে সাধারণ মানবী ভাবত। কিন্ত যাদের জানা ছিলো পরী হচ্ছে পরী, তারা সবাই তাকে আগলে রাখতে চাইতো – অধিকারে মায়ায় ভালোবাসায়। কিন্ত পরীর অপেক্ষা ছিলো এক ম্যাজিশিয়ানের , যে জাদুকাঠি ছুঁইয়ে তাকে মুক্ত করবে মানব খোলস থেকে, উড়বার আকাশ দেবে । এই ভাবনায় তার দিন কাটে, রাত কাটে । ম্যজিশিয়ান আর আসেনা।

এক ছিলো ম্যাজিশিয়ান –

কিন্ত সে নিজেই জানতো না তার কাছে যে জাদুরকাঠি আছে, হাতের মুঠোয় স্বপ্ন আছে, বুকের ভেতর নদী। সে ভাবছিলো সাধারণ মানুষের জন্ম নিয়ে এসেছি সাধারণ হয়ে কাটিয়ে যাই।

 

এক ছিলো রাক্ষস –

তাকে সবাই ধর্ম নামে ডাকে। তার ছিলো লুকনো দাত নখর, সযত্নে লুকনো।

 

পরী আর ম্যাজিশিয়ান আর রাক্ষস , তিনজন যারযার মত দিন কাটায় কেউ কারো ছায়াও মারায় না , যেন তিনজনের কেউই বাস্তবে নেই – যেন জলের ওপর মেঘের ছায়া।

 

তারপর একদিন, প্রচন্ড কোলাহল আর ভীর এবং বাজনার ভেতরে শাখের শব্দ আর ধুপের ধোঁয়া এবং হ্যাজাক বাতির হিসহিসে আলোর ভেতর চোখে চোখ পরে ম্যাজিশিয়ান আর পরীর। মুহূর্তের জন্য কোলাহল আলো বাজনা থেমে যায় – কেবল নিঃশব্দ আর বুক ধুকপুক।

 

আড়ালে রাক্ষস মুচকি হেসে দাতে আর নখরে শান দেয়।

 

তারপর, ম্যাজিশিয়ানের ম্যাজিকে পরী সত্যিকারের পরী হয়ে উড়ে বেরায় আকাশ জুড়ে, তারা চাইলেই রাস্তাগুলো নদী হয়ে যায়, তুচ্ছ একটা বাইক হয়ে যায় পঙ্খিরাজ ঘোড়া। দিনের রঙ বদলায় যখন তখন – তারা চাইলেই বৃষ্টি নামে। তুমুল বৃষ্টিতে হাতেহাত রেখে তারা হেটে যায় নির্বিকার।

 

তারপর –

তারপর –

তারপর –

রাক্ষস আড়াল ছেরে আসে প্রকাশ্যে, হিংস্র দাত নোখ বের করে আচড়ায় কামড়ায়। তারা রক্তাক্ত কিন্ত হাসিমুখে সয়ে যায়, সব।

 

অতঃপর,

একদিন, পৌষের সকালে সূর্য ওঠার আগের আলোয় তারা মুখোমুখি হয়

– তোমার চোখ অত লাল কেন, ঘুমাওনি ?

– হ্যাঁ, ঘুমিয়েছি। আবার কবে দেখা হবে ?

– জানিনারে পাগলী। হয়তো এজন্মে নয়। যাই , যাবার সময় হলো।

– যাই বলেনা, এসো। নিজের যত্ন নিয়ো ।

– হু

– হু

 

এবং,

বহু, বহুদিন পর এক মাঝরাতে মাঝখানে দুই দুইটা মহাসগরের দুরত্বে বসে ম্যাজিশিয়ান বুঝতে পারে পরীর চোখ গুলো অত লাল ছিলো কেন, সেই ভোরে।

কান্নায়।

আর বৃষ্টির ছাঁটে যাবে না দেখা দুজনের চোখের জল…..

একদিন বৃষ্টিতে বিকেলে

আমরা ধরা পড়ে যাব জেনো ঠিক

ধুয়ে যাবে যত আছে অভিমান

ধুয়ে যাবে সিঁদুরের টিপ

৩১৮জন ৩১৮জন
0 Shares

২৯টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ