ভালোবাসার খুনি !!

সুপর্ণা ফাল্গুনী ৩ এপ্রিল ২০২০, শুক্রবার, ০১:১০:২৪অপরাহ্ন কবিতা ২০ মন্তব্য

এই তুমি তো সেই তুমি নও –
যাকে আমি ভালোবেসেছিলাম,
যাকে দেবতার আসন অর্পণ করেছিলাম।
যার আবেগে,কান্নায় নিজেকে সমর্পিত করেছিলাম অবলীলায়।
দেখছি ,ভাবছি আর অবাক হচ্ছি- একই অঙ্গে এতো রূপ!
এই কি সেই তুমি? এতো নিষ্ঠুর, নির্দয় তুমি?
আমাকে কাঁদিয়ে তুমি সুখ পাও নির্দ্বিধায়, তুমি খুনি!
তুমি হাসতে পারো খুনি হয়েও,
তুমি ভালো থাকতে পারো খুনির রক্তে।
আমার অশ্রু তোমাকে আজ আর বিচলিত করে না ।

সব শেষ করে দিলে মিথ্যে অহমিকায়, মিথ্যে উছিলায়;
কি অপরাধ ছিলো আমার- তোমার প্রতি;
এক নিমিষেই গভীরতর বন্ধুত্বের গ্রাফটাকে অচেনার দেয়ালে টেনে নামালে?
চাওয়ার/পাওয়ার/দেনাপাওনার হিসেবে তোমাকে হৃদয়ে বাঁধিনি।
মুক্ত/স্বচ্ছ/চকচকে শ্বেতপত্রে ভালোবাসার চম্পু লেখার সাধ ছিলো।
সেখানেও তোমার কার্পণ্যতা !
সন্ধ্যা পেরিয়ে রাত,রাত পেরিয়ে ভোর;
আবার সকালের মিষ্টি রোদে – কথোপকথনে বিলীন হওয়া –
সব আজ অচেনা, অস্বাভাবিক!
এ তোমার কেমন বিমাতাসুলভ আচরণ?

তোমাকে নিয়ে আমার অনেক স্বপ্ন ছিল,
ছিলো অভিলাষের বৃত্তে আবদ্ধ পরিপাটি মানসলোক।
একটি সাবন কাটাবো বিনিদ্রার চাদরে,
তোমার নিঃশ্বাসের উষ্ণতার কম্পনে প্রকম্পিত হবো।
হারিয়ে যাবো মর্ত্যলোক থেকে বহুদূরে,
নিরবতার মিছিলে একাত্ত হয়ে;
কথার ফুলঝুরিতে নয় আত্নার মেলবন্ধনে।

ভালোবাসা কখনোই পাপ হতে পারে না;
তাকে তুমি পাপী করেছো নিজ স্বার্থে ,
ক্ষণিকের মোহ বানিয়ে নির্মল ভালোবাসাকে করেছো অপমানিত;
তুমি আমার আত্নাকে খুন করেছো,
বিশ্বাস কে খুন করেছো,বন্ধুত্বকে খুন করেছো।
তুমি খুনি! আমি চিৎকার করে বলবো তুমি খুনি!!
আমার কষ্ট আজ আর তোমাকে- আমার বুকে টেনে আনেনা।

কতটা বদলে গেছো তুমি!
আত্ন-অহমিকায়,আত্ন-তৃপ্তিতে ভুলেছো পাপ-পূণ্যের মাপকাঠি;
ভুলেছো কাউকে কাঁদিয়ে কখনো সুখী হওয়া যায় না,
অহংকার কখনো কন্ঠহার হতে পারে না।
মিথ্যা অভিযোগে আমাকে করেছো দোষী,
করেছো অচিনপুরের বাসিন্দা।

ভেবেছো কি কখনো-এই ভব মাজারে কোনোকিছুই চিরস্থায়ী নয়?
হাসির পর কান্না, সুখের পর দুঃখ এই নিয়েই ভবলীলা সাঙ্গ হবে;
বিচার হবে প্রতিটি প্রহরের ,রঙের, হাসি-কান্নার,ঘাত-প্রতিঘাতের।
সেদিন আমিও বিচার চাইবো-
আমাকে দেয়া প্রতিটি আঘাতের, কান্নার-
‘কি ছিলো আমার অপরাধ?’

২৩২জন ৪০জন
38 Shares

২০টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য