ভারতের টিভি চ্যানেল নিয়ে আপনার এলার্জি থাকলে তার আগে আসেন তো দেখি নিজের চর্কিটা ঠিকমত ঘুরছে কিনা। আলোচনা সমালোচনা করার আগে আসেন একটা গল্প করা যাক। একদা এক রাজা ভাবলেন প্রার্থনার জন্য নিরিবিলি জায়গা প্রয়োজন এতে ব্যঘাত ঘটবে না আর স্রষ্টার নৈকট্যলাভ ও সহজ হবে তাই একটি মন্দির বানালেন পাহাড়ের চূড়ায় এবং ঘোষণা দিলেন আজ থেকে প্রজাদের বাধ্যতামূলক সেখানেঈ পূজা অর্চণা দিতে হবে।

প্রজাদের জন্য এটা ছিল কঠিন । বৃদ্ধ আর শিশুদের এটা ছিল দুরহ। এই ঘটনা পাশের রাজ্যের রাজা অবলোকন করলেন আর প্রজাদের এই দূর্বলতা কাজে লাগিয়ে রাজ্য দখলের প্রক্রিয়া শুরু করলেন। তিনি রাজ্য সিমানার কাছে সমভুমিতে মন্দির বানালেন আর তা অবমুক্ত করে ঘোষনা দিলেন নিয়মিত পূজাদানকারীদের স্বর্ণমুদ্রা দেওয়া হবে।

মোবাইলে বাংলা টাইপ কষ্টসাধ্য তাই এর পরের ঘটনা টেনে আর নিজের কষ্ট বাড়াতে চাই না ।

কাজের কথায় আসি _____

তো যা বলছিলাম ভারতীয় টিভি চ্যানেল বা প্রোগ্রাম গুলি একদিনে এতো জনপ্রিয় হয়নি। আজ তারা যে অবস্থানে আছে আমরা তার বিকল্প কিছু সৃষ্টি করে দর্শকটানতে পারিনি। উল্টা সমালোচনা মিছিল মিটিং করে তাদের জনপ্রিয়তা আরো বাড়িয়েছি। একটা কিছুতে অভ্যস্ত মানুষকে তা থেকে বিমুখ করতে হলে আরেকটা কিছু তাকে দিতে হবে।

আমাদের দেশে ভালো প্রোগ্রাম হয় না আমি তা বলবো না, হয় কিন্তু তা এই বিশেষ ধরণের দর্শক টানতে পারছে না । কেন পারছে না ? তা বের করাটা জরুরী।

বিশ্বায়নের যুগে অনেক ধরণের আগ্রাসন চলছে। এর মাঝে সাংস্কৃতিক আগ্রাসন উল্লেখযোগ্য। যা দিয়ে খুব সহজে প্রভাব বিস্তার করা যায় আর আমরা তাই দেখছি। কিন্তু তার সাথে প্রতিযোগীতায় না গিয়ে তার কন্ঠরোধের চেষ্টা করছি। এখানে প্রতিযোগীতাটা অবশ্যই অসুস্থ প্রতিযোগীতা ব্যাখ্যা করবেন না । যেখানে উচিত ছিল একটি জাতির মুখপাত্র হিসেবে নিজস্ব সংস্কৃতির ধারক বাহক হিসেবে মিডিয়া হাউজ গুলির যথাযথ ভূমিকা রাখা। আমরা কতটুকু পেরেছি ? কতটুকু করছি ? আর তা কিভাবে করছি ? প্রশ্ন থাকলো……….

৪০১জন ৪০১জন
0 Shares

২টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ