ভাবনার খসড়া

বন্যা লিপি ১ জানুয়ারী ২০১৯, মঙ্গলবার, ০৭:১৮:৩২অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি ১২ মন্তব্য

ভাবনারা রেশম পালকের মতো কেবলই চোখে মুখে ছুঁয়ে যায় ভেজা কুয়াসা হয়ে। সকালের নরম প্রথম রোদের মতো এসে চকচকে করে তোলে প্রতিটি দিনের এক একটা দিনের সময়ের পেন্ডুলাম। ছোট্ট ছোট্ট পায়ে হামাগুড়ি দিতে দিতে কখন যেন এনে দ্যায় দিনান্তের গোধুলী সন্ধ্যা। হলুদ বিকেলটা উষ্ণ চাদরের মতো জাপটে আসে প্রতি ইঞ্চি শরীরের ভাঁজে ভাঁজে লুকিয়ে থাকা শীতার্ত আবেগ নিয়ে ঘুড়ি ওড়াতে। ওড়াতে….. ওড়াতে কখন যেন জ্বলে ওঠে সন্ধ্যাবাতি। জানান দ্যায় দিনের আলোটুকু শেষ।

আরেকটা ভোরের প্রতীক্ষায় শুরু হয় দীর্ঘ রাত্রিযাপন। প্রার্থনার আবিষ্টে কেটে যায় প্রতিদিনের শুভ অশুভ আশিষের উৎকন্ঠা!

দিনটা ভালো কাটবে তো? প্রভাতের প্রথম সূচনায় শুভ বার্তাগুলো যেন সান্তনার পরশ বুলায়…. শুভ সকাল, শুভ দুপুর,শুভ সন্ধ্যা অথবা শুভ রাত্রি। চাওয়া বা না চাওয়ার তোয়াক্কায় থাকেনা অঘটনের বা ঘটনা আনুষঙ্গিকতা। কেবলই যা ঘটবার তা অমোঘ নিয়তির মতো এসেই যায় বিনা আশিষের নিমন্ত্রনে। আত্মা’র শুদ্ধিতা, শুচিতা,,নির্মলতা  পবিত্রতায় উৎরে যাই পরম মহানুভবের কৃপায়।দিন আসে দিন যায় আবার আসে ভোর।সপ্তাহ,মাস,বছর। একে একে ফেলে আসি পেছনে নিজ নিজ আয়ুসম বয়স আর বয়সের সাথে সাথে বাল্যকাল,কিশোর কাল,তারুন্যে ভরা স্মৃতীময়  শত শহস্র স্মৃতী ভরা সোনালী দিনের রুপকথার ঝুলি। বছরের পর বছর পার হতে হতে পৌঁছে যাই বেলাশেষের পারাপারের ঘাটে। মুঠো খুলে চোখের সামনে এনে দেখার চেষ্টা করি,  পারাপারের কড়ি কতটুকু আছে এ হাতের মুঠোয়?

আরেকটা বছর পেছনে ফেলে এলাম এই একটু আগে। আরকবার পৌঁছে এলাম নতুন আরেকটু করে ঘাটের কিনারে।  “সবাই বলে বয়স বাড়ে,  আমি বলি কমে রে…….  আমি বলি কমে “…..চলার পথে দেখা হলো কত কত পাখিদের, ফুলেদের সাথে!! বড় সম্বল হয়ে রইলো তবে এটুকুই। কি দিলাম আর কি নিলাম,…. হিসেবের খাতায় জড়িয়ে থাকুক লাল মলাট আর সাদা শুভ্রতার পবিত্রতা। বাসতে জানলে ভালো…. তবেই জমবে কড়ি।

 

সকলকে আরেকটা নতুন সুর্যের নতুন আলোর সম্ভাষন, শুভেচ্ছা, ভালোবাসা, শুভ কামনা।

৫৫৬জন ৫৫২জন
0 Shares

১২টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ