ভয়াবহ দুঃস্বপ্ন

সুরাইয়া পারভীন ৮ জুলাই ২০২১, বৃহস্পতিবার, ১০:৫৯:৫০অপরাহ্ন ছোটগল্প ১২ মন্তব্য

একদিন মধ্যরাতে

কোনো কারণে ঘুম ভেঙে গেছে সমুদ্রের

আধো বন্ধ আধো খোলা চোখ

হঠাৎ দেখতে পেলো তার সিথানে

তারই দিকে চেয়ে একটি মেয়ে রয়েছে দাঁড়িয়ে

খোলা চুল সাদা শাড়িতে আবৃত মেয়েটি

হাতে রয়েছে শ্বেত শুভ্র একগুচ্ছ পুষ্পস্তবক

ভয়ার্ত তার দৃষ্টি; অবিরত ঘামছে সে

কাঁপা কাঁপা কন্ঠ; অস্পৃষ্ট শব্দ 

-কে?

 

=আমি প্রীতিলতা।

 

-তুমি! তুমি এখানে কী করে এলে? এতো রাতে এই বন্ধ ঘরে আর এমন বেশভূষা কেনো?

 

=আমি এখন যেকোনো সময় যেকোনো জায়গায় যেতে পারি। বন্ধ ঘরে ঢুকতে পারি অনায়াসে। আর বেশভূষা! আমি জানি তোমার পছন্দ না। কিন্তু আমি নিরুপায়।

 

-মানে! একজন মানুষ কী করে বন্ধ ঘরে আসতে পারে?

 

=মানুষ হয়তো পারে না কিন্তু মানুষের অশরীরী আত্মা পারে।

 

চোখে মুখে তার ভয়ঙ্কর ভয়ের ছাপ; কপালে বিন্দু বিন্দু ঘাম

 

-প্রীতিলতা কী বলছো এসব? অশরীরী আত্মা মানে!

 

=হ্যাঁ সমুদ্র অশরীরী আত্মা! আমি আর মানুষ নেই। মরে গেছি আমি

 

-মরে গেছো তুমি! কখন কীভাবে?

 

=মরে তো আমি সেদিনই গেছিলাম সমুদ্র যেদিন আমাদের যোগাযোগ বন্ধ হয়ে গিয়েছিল। আর তারপর তোমাকে হারিয়ে দিনকে দিন যন্ত্রণার যাঁতাকলে পিষ্ট হচ্ছিলাম। ঘাস ফড়িং পদতলে পিষ্ট হলে যেমন ছটফট করে, ঠিক তেমনই ছটফট করছিলাম। তোমাকে ছাড়া বেঁচে থাকা ভয়াবহ যন্ত্রণার ছিল। এমন শ্বাসরুদ্ধকর পরিস্থিতি কিছুতেই নিয়ন্ত্রণ করতে পারছিলাম না। তাই একদিন সিদ্ধান্ত নিলাম সুইসাইড করার। মরেই তো গেছি শুধু প্রাণহীন অথর্ব দেহটাকে টেনে নিয়ে বেড়ানোর কোনো মানেই হয় না। তাই মরে গেলাম।

 

-প্রীতিলতা এটা তুমি কী করলে, কেনো করলে এমন? আমি তো বলেই ছিলাম ফিরে আসবো। একটু অপেক্ষা করতে পারলে না! কেনো এভাবে নিজেকে শেষ করে দিলে?

 

=আমি যে আর সইতে পারছিলাম না সমুদ্র। বেঁচে থেকেও মরছিলাম। মৃত্যুর যন্ত্রণা সহ্য করতে পারিনি।

 

-প্রীতিলতা আমাকে তুমি ক্ষমা করো। আমার ভালোবাসা তোমাকে বাঁচতে দিলো না।

 

=সমুদ্র তুমি দেখতে আসবে আমায়? আসবে আমার কবরে এক মুঠো মাটি দিতে?

 

-আসবো প্রীতিলতা, আসবো তোমার কাছে। তোমার জীবনদশায় তোমার কাছে আসতে পারিনি। এই ব্যর্থতার গ্লানি ঘোচাতে অবশ্যই আসবো আমি। আসবো প্রীতিলতা।

 

ঠিক এমন সময় ফজরের আযান কানে পড়লো। ধুর মুর করে উঠে বসলো সমুদ্র। ঘামে ভেজা পুরো শরীর। মনে মনে বললো, শুনেছি ভোরের স্বপ্ন সত্য হয়। মায়ের মুখে শুনেছি স্বপ্নে প্রিয়জনের মৃত্যু দেখলে নাকি কোনো না কোনো মৃত্যুর খবর পাওয়া যায়। তবে কী কারো প্রস্থানের খবর আসবে!?

বিঃদ্রঃ অনেক দিন পর প্রিয় প্রাঙ্গণে আসতে পেরে আমি ভীষণ ভীষণ আনন্দিত।

 

১৭৩জন ৭৫জন
0 Shares

১২টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য