বেসুরো অর্কেস্ট্রা

খাদিজাতুল কুবরা ১৫ ডিসেম্বর ২০২১, বুধবার, ০১:০১:৫১পূর্বাহ্ন কবিতা ১৫ মন্তব্য

 

সত্যের পরতে পরতে জমা শেষ সত্যের অস্থায়ী বুদবুদ,
বিষম খাওয়া দুঃখগুলোকে এবার জানাব সাধুবাদ,
কি ভাবছ?  অদ্ভুত!
এ-ই হয়, তোমাদের ঐ এক দোষ, মিথ্যের ফানুস উৎসব ভালোবাস সত্যিতে নাখোশ।
শীতের ভয়ে অশীতিপর কাঁপছে থরথর,
তবুও শীত আসে অনায়াসে বৈচিত্র্য ধরে রাখতে ঋতুর।
প্রাণ বাঁচানো গেলোনা ঘাটের মরা সম্পর্কের।
আদিগন্ত শোকের নহর, খরস্রোতা কাটছে এপার ওপার পাথুরে নদীর।
মাথা ছাড়া দেয় আদিম তৃষ্ণা, সর্বত্র সুপেয় কিংবা কবোষ্ণ।
বৃষ্টির বড্ড আকাল এ খরায়, এদিকে চাতকের ঠোঁট খসখসে প্রায়।
পুনরুজ্জীবন দিলেন মনস্তাত্ত্বিক , চিন্তাধারার তিনি সুপরিবাহক।
আজ এ পর্যন্ত থাক।
অতঃপর,
অভিমানি মেঘপত্র গয়নার বাক্সে জমুক, আটঘাট বেঁধে লিখবে বৃষ্টির শ্লোক!
গোমড়ামুখী পাহাড় করেছে পণ হাসবে সে অকারণ, সুন্দরী ঝর্ণা ফোয়ারা ছড়াতে ব্যস্ত ভীষণ!
হাসি কান্নার আড়ালে দ্বৈতস্বত্তা চলছে উল্টো চালে,
বলছে তালে – বেতালে,
“বেখেয়ালে ভাবছ আমাকে হারিয়ে দিলে?
তা নয়তো সোজা,  বুঝবে বাছা!
ঝাপসা চোখে বাছতে গিয়ে অনুভূতির আগাছা; আমি রয়ে যাব অগোচরে।
তাই বলছি সাথে রেখো মোরে, বাসনার অন্তরালে। সারবস্তু এ-ই আমরা এক যোগে অর্কেস্ট্রা বাজাই।”

৩৩৯জন ১০৫জন
0 Shares

১৫টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন



লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য




ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ