বেপরোয়া ছাত্রলীগকে নিয়ন্ত্রণ করা হক

জি.মাওলা ১০ এপ্রিল ২০১৪, বৃহস্পতিবার, ১১:৩৫:৫৮অপরাহ্ন বিবিধ ৬ মন্তব্য

বেপরোয়া ছাত্রলীগের মাথা মুণ্ডন করা হক

ছাত্র লীগ , হা ছাত্র লীগ বর্তমানে একটি আলোচিত সংগঠনের নাম। আলোচিত তাঁরা তাদের কর্মকাণ্ডের জন্য। অথচ এই ছাত্রলীগ হতে উঠে এসেছে বড় বড় নেতা। যারা বর্তমান সরকারের মন্ত্রী ও দেশের অনেক গুরুত্বপূর্ণ পদে রয়েছেন। অথচ এই ছাত্র লীগ তাদের বেপরোয়া কাজের জন্য বর্তমানে খবরের কাগজে। আগে তাঁরা কাগজে খবর হত দেশের বিভিন্ন আন্দোলনে সক্রিয় ভুমিকা রেখে দেশ গঠনে, সেই ছাত্রলীগ সময়ের বিবর্তনে আজ কাগজের খবরে নেতিবাচক ও দেশ ধ্বংসের কাজে লিপ্ত থেকে। নিজ দলীয় কর্মীকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করা, পিটিয়ে হত্যাসহ কিছুই বাদ যাচ্ছে না তাদের খবরের নিউজ হতে।
>গত এক সপ্তাহেই দুই বিশ্ববিদ্যালয়ে খুন হয়েছেন দুই ছাত্রলীগ নেতা। পরীক্ষার তারিখ পেছানোকে কেন্দ্র করে নিজ দলের কর্মী সায়াদ ইবনে মোমতাজকে ৩১ মার্চ রুমে ডেকে নিয়ে রড, লাঠি, হকিস্টিক, স্ট্যাম্প দিয়ে পিটিয়ে আহত করে ছাত্রলীগের ক্যাডাররা। আহত সায়াদকে চিকিৎসা কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হলে পরদিন তিনি মারা যান। ঘটনার সঙ্গে ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরাই জড়িত বলে আহতাবস্থায় সায়াদই তার ভাইকে জানিয়েছিল।সর্বশেষ, গত শুক্রবার শহীদ সোহরাওয়ার্দী হলের ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক রুস্তম আলী আকন্দ খুন হন।
>চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতাকেও শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করেছে ছাত্রলীগ।
>গত এক মাসে নিজ দলের অভ্যন্তরে ও বিরোধী ছাত্রসংগঠনের সঙ্গে অন্তত ১৫ বার সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েছে তারা। পঙ্গুত্ব বরণ করেছে পাঁচ নেতা-কর্মী।
>গত বছরের ২০ ডিসেম্বর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ইভ টিজিংয়ের প্রতিবাদ করায় তিন ছাত্রীকে মারধর করে ছাত্রলীগ।
> মদের বিল পরিশোধ করা নিয়ে বারকর্মীদের হাতে বেধড়ক পিটুনির শিকার হন সলিমুল্লাহ মুসলিম হলের সভাপতি মেহেদী হাসান। গত ২৯ জানুয়ারি এ ঘটনা ঘটে।
>এ ছাড়া বিভিন্ন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়সহ প্রায় সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে একচ্ছত্র আধিপত্য বিস্তার করা এ সংগঠনটি ছাত্র রাজনীতি ছাড়িয়ে সন্ত্রাস, চাঁদাবাজিসহ বিভিন্ন অপকর্ম কাজে জড়িয়ে পড়েছে।

এই সব অপকর্ম কি বন্ধ হবে? শাস্তি কি পাবে জড়িতরা?
ছাত্র রাজনীতির নামে যা করে চলছে ছাত্রলীগ তা অচিরেই বন্ধ হোক।

১৪৬জন ১৪৬জন
0 Shares

৬টি মন্তব্য

  • প্রজন্ম ৭১

    আপনার লেখার শিরোনামে আপত্তি দিলাম।
    কিছু প্রশ্ন :
    রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে এক ছাত্রলীগ নেতা খুন হয়েছে। কারা এই খুন করেছে?
    শিবিরের আগে রগকাটা বলা হয় কেনো?

  • প্রহেলিকা

    ভাইজান আপনার বিকৃত মস্তিস্কের চিন্তাধারা দেখেই মন্তব্য করতে বাধ্য হলাম নাহলে আপনার মত কোনো বিকৃত মস্তিষ্কের মানুষের লিখায় আমি মন্তব্য করি না বা করতেই চাইও না। হযরত সোলায়মান (আ:) বলেছিলেন আহম্মকের কথায় প্রতিবাদ করিও না তাহলে শেষে তুমি নিজেই আহম্মক হয়ে যাবে। তারপরও আপনাকে কিছু বলতে আসলাম।

    আচ্ছা ভাইজান আপনার শিরোনাম **বেপরোয়া ছাত্রলীগের মাথা মুণ্ডন করা হক**

    হক বানানটা ভুল আছে ঐটা হবে হোক। যাইহোক হতেই পারে সেটা। শিরোনাম পড়ে লিখতে দেখি অনেক অভিযোগ যেমন ::

    ***গত এক সপ্তাহেই দুই বিশ্ববিদ্যালয়ে খুন হয়েছেন দুই ছাত্রলীগ নেতা। পরীক্ষার তারিখ পেছানোকে কেন্দ্র করে নিজ দলের কর্মী সায়াদ ইবনে মোমতাজকে ৩১ মার্চ রুমে ডেকে নিয়ে রড, লাঠি, হকিস্টিক, স্ট্যাম্প দিয়ে পিটিয়ে আহত করে ছাত্রলীগের ক্যাডাররা। আহত সায়াদকে চিকিৎসা কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হলে পরদিন তিনি মারা যান। ঘটনার সঙ্গে ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরাই জড়িত বলে আহতাবস্থায় সায়াদই তার ভাইকে জানিয়েছিল।সর্বশেষ, গত শুক্রবার শহীদ সোহরাওয়ার্দী হলের ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক রুস্তম আলী আকন্দ খুন হন।
    >চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতাকেও শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করেছে ছাত্রলীগ।
    >গত এক মাসে নিজ দলের অভ্যন্তরে ও বিরোধী ছাত্রসংগঠনের সঙ্গে অন্তত ১৫ বার সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েছে তারা। পঙ্গুত্ব বরণ করেছে পাঁচ নেতা-কর্মী।
    >গত বছরের ২০ ডিসেম্বর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ইভ টিজিংয়ের প্রতিবাদ করায় তিন ছাত্রীকে মারধর করে ছাত্রলীগ।
    > মদের বিল পরিশোধ করা নিয়ে বারকর্মীদের হাতে বেধড়ক পিটুনির শিকার হন সলিমুল্লাহ মুসলিম হলের সভাপতি মেহেদী হাসান। গত ২৯ জানুয়ারি এ ঘটনা ঘটে।
    >এ ছাড়া বিভিন্ন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়সহ প্রায় সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে একচ্ছত্র আধিপত্য বিস্তার করা এ সংগঠনটি ছাত্র রাজনীতি ছাড়িয়ে সন্ত্রাস, চাঁদাবাজিসহ বিভিন্ন অপকর্ম কাজে জড়িয়ে পড়েছে।******

    অভিযোগ গুলো পড়ার পর আসলে মনে হলো আপনার মাথায় অনেক সমস্যা। ছাত্রলীগ এত এত কিছু করছে এমনকি খুন পর্যন্ত আর আপনি এইসব অভিযোগের শাস্তি চাচ্ছেন মাথা মুণ্ডন??? এগুলোর শাস্তি কি মুণ্ডন??? পাবনার ঠিকানা জানেন??

    যাইহোক আবার শুনেন অনেক কিছুতো বলে হওয়া হয়ে গেলেন যেমনটি প্রতিবারই পোষ্ট দিবার পর হওয়া হয়ে যান। আপনি বেছে বেছে ছাত্রলীগের এই অভিযোগ গুলোইকি পেলেন ??? আরে ভাই সামগ্রিক দেশের কোথায় কি ঘটছে সেটাও যদি এক নজরে বলে দিতেন তাহলেই ভাল হতো। সেখানে ছাত্রলীগ অথবা ছাত্রদল যেই থাকুক না কেন অপরাধীর শাস্তি পেতেই হবে কিন্তু আপনি কিভাবে শুধু ছাত্রলীগের অভিযোগ দেখিয়ে গেলেন কেন অন্যান্য পার্টির লোকেরা কি ইদানিং কিছুই করেনি ?গত কয়েকদিনে কি এমন কেউ খুন হয়নি যেটার সাথে ছাত্রলীগের কোনো হাত নাই ???? আইছেন খালি ছাত্রলীগ লইয়া।

  • প্রহেলিকা

    ভাইজান একটা হিসাব মিলাইতে পারতাছিনা এক সপ্তাহে ছাগুদের বায়তুল মালের চান্দা দিয়া কয়ডা পেট্রোল বোমা হয় ??? আপনেরতো জানার কথা। বইলা যাইয়েন।

  • নীলকন্ঠ জয়

    আপনার পোষ্টে আমার মন্তব্য করার অপশন খোলা আছে দেখে অবাক লাগলো। ছাত্রলীগ খারাপ একথা মানতে কোন সমস্যা নেই। আপনাদের ভাষায় কুত্তালীগ, শেখ মুজিবের সোনার চ্যালা, ভারতের পা চাটা ইত্যাদি। সচেতনভাবেই আমরা অনেকেই রাজনীতি বিশ্লেষণ করি যারা তারা খুব সহজে আপনার মতো পাবলিকের উদ্দেশ্য এবং ভাষা বুঝতে পারি।

    > বলেনতো বাংলাদেশে কতোটি দল ছাত্র রাজনীতি করে ?
    > স্বচ্ছ রাজনীতি কোন দলের ছাত্ররা চর্চা করছে?

    যদি উত্তর না হয়, তবে ছাত্রলীগের মুন্ডপাতের কথা এককভাবে কেনো বললেন?

    একটা কথা কি জানেন? ‘ল্যাঞ্জা ইজ ভেরী ডিফিক্যাল্ট থিং টু হাইড।’ মন্তব্যের উত্তর দেওয়ার সৎ সাহস না থাকলে এই ধরণের পোষ্ট দেন কেনো ? ?

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ