গেঁয়ো ভুল ছিল না,
চাষাড়ে অবয়বের জন্য টলটলে স্বপ্ন-বৃষ্টি
পুঞ্জিভূত মেঘের বাঁধ ভেঙ্গে নির্দোষ অনুভবে
আছড়ে পরছে না;
শুধু বেঁচে বর্তে থাকে, শুধু হাড়-জ্বালানোর মূল শর্তে;
উধাও-বৃষ্টির নাগাল পেতে মেঘকে বুঝিয়ে শুনিয়ে
উল্টে-পাল্টে নির্লজ্জের মত কত কী-না বলি!

সঠিক ভাবে কষা অংকের মূল সমীকরণের
বিচ্ছিন্ন সংযোগকে ভালোলাগা-না-লাগা ভুলে
দ্রুত ছুটে-ফুটে মেঘের দেশে ঝুলে থাকি,
এই বুঝি বৃষ্টি এলো!
চকে-আঁকা সীমা প্রাচীর ভেদ করে
অপেক্ষার-বৃষ্টি আর আসে না;

বৃষ্টি-না-এলে
যথেষ্ট মেয়েলি ভাব নিয়ে (ক্ষতিকর এমন কিছু না)
হীরের-চমক-সৌষ্ঠব নিয়ে শিশির দাঁড়িয়ে হাসছে,
সম্পূরক আহ্বানে।

ছুঁয়ে যাওয়া রৌদ্রকরোজ্জ্বলময়তা মন্দ লাগে না;
সুখ-স্বপ্নের বাস্তবতায় মুখ গুঁজে বৃষ্টিকে প্রতারক-মাষ্টার
বলছি-না, নিঃশ্বাস-প্রশ্বাসের শীতল ক্রোধ নিয়ে-ও।

১৭৮জন ১১জন
22 Shares

২৪টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য