সোনেলা দিগন্তে জলসিড়ির ধারে

 

দাবার ছকে ফেলে ছক মিলিয়ে লিখি-না,
রাজা, প্রজা, উজির, নাজির, সেনাপতি মেরে কেটে লিখি-না,
রাতজাগা চোখের অদৃশ্য আয়না থেকে পালিয়ে বেড়াব
এমন ও ভাবি-না,
গোল হয়ে বসে অদৃশ্য স্বপ্ন-ডানার নিরক্ষরতা
ছুঁড়ে ফেলব, তাও ভাবি-না;

আলাদীনের প্রদীপ জ্বেলে,
যতি চিহ্নের ছাইচাপা আগুনগুলো উড়িয়ে দেব
তা কিন্তু ভাবি।

সবটুকু নীরবতা উপেক্ষায় রেখে, মুখে মার্বেল ফেলে
গো গো করে উগড়ে দেব লিখে/ভেবে রাখা
পাহাড় পাহাড় হাসি, রোদের বয়স না মেপে;

ঘেমে থাকা বুক পকেট শুষে নেবে রক্ত-বিষ
ধানের জন্ম-ঘ্রাণে;

পাটি গণিতের যোগ বিয়োগ পূরণ ভাগ শিশিরে ভিজিয়ে
ফেলে দেব বিচ্ছিন্ন কাদার পাহাড়ে, লাজুক লাজুক হাসিতে,
বৃক্ষ বেঁচে থাকবে কৌশল-ঘুমে, পুষে রাখা হাজার বছরে।

ছবি ও গান নেটের।

১৭৭জন ৬৮জন
0 Shares

১৪টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য