বিষন্নতা

রেজওয়ানা কবির ২৩ আগস্ট ২০২০, রবিবার, ০১:১৫:৪৭পূর্বাহ্ন একান্ত অনুভূতি ২৮ মন্তব্য

বিষন্নতাঃ বিষন্নতা প্রত্যেক মানুষের জীবনে কোন না কোনভাবে জড়িত।এই বিষন্নতা মানুষের জীবনকে এক মুহুর্তে নষ্ট করে দিতে পারে।তবে বিষন্নতার পরিমান আগে বুঝতে হবে।কেননা কম বেশী সকলেই এই বিষন্নতায় ভোগে।যখনি এর মাত্রা অতিরিক্ত পর্যায়ে চলে যায় তখনি এটা একটা রোগে পরিনত হয়।আর এর ফলেই মানুষ ইচ্ছা না থাকা স্বত্বেও  অনেক ধরনের ভুল কাজ করে ফেলে,এজন্যই অনেক্ব নিজেকে অনেকভাবে কষ্ট দেয়,আবার অনেকেই বেঁছে নেয় আত্নহননের  পথ।আমরা শুধু দেখি যে কেউ একজন আত্মহত্যা করেছে,খারাপ করেছে,কিন্তু কোন পর্যায়ে গিয়ে সে এই পথ বেঁছে নেয় সেটা খুঁজে না কেউ।বিষন্নতার চরম পর্যায়ে হয়ত সে ভুল,ঠিক কিছুই বুঝতে পারে না।অগত্যা এই পথ বেঁছে নেয়।তবে এটা সঠিক পথ নয়। মন অদ্ভুত একটা সম্পদ।নিজের অজান্তেই মানুষের মন মাঝে মাঝে খারাপ হয়। তখনি ভর করে বিষন্নতা।তবে এটি শুধু ম মন খারাপ বলে পাশ কাটিয়ে যায় না,এটা মানুষের শরীর, মেজাজ কাজ সব নষ্ট করে দেয়।এই বিষন্নতা নিয়ে অনেক গবেষনা হয়েছে।অনেকেই চরম পর্যায়ে কাউনসিলিং করে,মনোরোগ বিশেষজ্ঞদের কাছে যায়,আবার অনেকে এসব করেও নিজেকে এর হাত থেকে রক্ষা করতে পারে না।তাই এই বিষন্নতা থেকে বাঁচার জন্য সবচেয়ে উত্তম পন্থা নিজেকে মন থেকে strong রাখা।

আসুন জেনে নেই বিষন্নতা দূর করার কিছু উপায়।।।।

১ ইতিবাচক মানুষের সাথে থাকাঃ বিষন্নতার পিছনে থাকে হতাশা, তাই এটাকে ঝেরে ফেলতে সবচাইতে বেশী দরকার,ভালো সঙ্গী বাছাই করা।তার পাশাপাশি থেকে শুধু positive ভাবে সব দেখা।

২.পর্যাপ্ত ঘুমঃ ঠিকমত ঘুম না হওয়াই বিষন্নতার কারন।কমপক্ষে ৮ ঘন্টা  ঘুমালে এটা দূর করা যায়।

৩. সঠিক খাদ্যাভাসঃ বিশেষজ্ঞরা বলেন,উপযুক্ত পরিমানে পুষ্টিকর খাবারের অভাবে বিষন্নতা দেখা দেয়।

৪. মন ফ্রেশ রাখাঃ যেগুলো চিন্তা করলে বিষন্নতা আসবে সেগুলো মন থেকে ভাবা বাদ দিতে হবে।নতুন নতুন মানুষের সাথে পরিচিত হোন,এছাড়া ভালো লাগার কাজ করুন।দীর্ঘমেয়াদী চিন্তা বাদ দিন,পরিবারের সাথে সময় কাটান,ঘুরতে যান,প্রকৃতিকে ভালোবাসুন।

৪.নিজেকে শক্তিশালী করাঃ আমি পারব,আমাকে পারতেই হবে,এই বিষয়টি বার বার নিজের মধ্যে রাখতে হবে

৫ প্র‍য়োজনে চিকিৎসকের পরামর্শ নেয়াঃ এই বিষন্নতা বেশি হয়ে গেলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে, তাছাড়া তার আগে নিজেকে এটা থেকে বের করতে হবে এই বিষয়টি আগে উপলব্ধি করতে হবে।

আসুন বিষন্নতাকে পাত্তা না দিয়ে এটাকে জয় করেই সামনের পথগুলো পাড়ি দেই। নিজে ভালো থাকি,পরিবারের সবাইকে ভালো রাখি।

২৪৩জন ৪৩জন
0 Shares

২৮টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য