বিশ্বাস! (ম্যাগাজিন)

তৌহিদুল ইসলাম ২১ মে ২০১৯, মঙ্গলবার, ১২:৩৪:১৯পূর্বাহ্ন কবিতা ২৩ মন্তব্য

বিশ্বাস,
তুমি এসো আরেকবার নিখিল সঙ্গোপনে
মন করে আনচান, কাঁদে যে সে প্রান;
খুঁজিতে না পাই তারে মোর নীপবনে।

বিশ্বাস,
তুমি এসো নীলাম্বরীর ঝিনুক কনা হয়ে
হাতে রেখে হাত, আবারো সে প্রভাত;
সদ্য বকুলের মালাখানি তারে দিও তুমি পরায়ে।

বিশ্বাস,
তুমি এসো হংসযুথীকার স্নিগ্ধ জোসনা হয়ে
ছুঁয়ে কপলের তিলকখানি, করে হাসি মুখ;
দিও চুম্বনখানি তারে সে ললাটে জড়ায়ে।

বিশ্বাস,
তুমি নিয়ে এসো সাথে সেই মধুচন্দ্রিমা রাত
কিছু আদরে, সোহাগ মাখানো ঘর্মসিক্ত দেহে;
নিস্তেজতায় কম্পনতায়, হাতখানিকে রেখো বুকে জড়ায়ে।

বিশ্বাস,
সেদিন জ্বেলোনা প্রদীপ লজ্জাবতীর লাজে
আমি নিজেও কি কম? বড় অদ্ভুত চাওয়া !
সাজাবো তারে রাঙা সাজে।

বিশ্বাস,
আমি কড়া নেড়েছি আজ প্রিয়ার লৌহ দ্বারে
দুরুদুরু বুকে, ভয়ে হাঁটু কাঁপে;
আশার মশালে দিওনাগো আর অশ্রুজলটুকু ঢেলে।

বিশ্বাস,
আজ আসবে কি আবার মানবীর ছায়া হয়ে?
পাওয়া যেন সে দূর, ব্যবধানে বিধুর;
লক্ষ যোজন ঝরা পাতারা আজ আশাহত হয়ে ঝরে।

বিশ্বাস,
যে চলে যায় সে বারে বারে কি আসে ফিরে?
পথ বেঁকে যায়, মন ডুবে যায়;
তবু এসো সব মান ভেঙে তার হিয়ার সঙ্গী হয়ে।

৭২৭জন ৭২০জন
24 Shares

২৩টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ