ছেলেবেলায় আমার কোনো বিশেষ নাম ছিলো না‌। ছিলো না মনে বিশেষ নামের দরকার পড়েনি। বাবা মা আকীকা করে নাম দিয়েছেন সুরাইয়া পারভীন। এই নামটাকে যে যার মতো করে ডাকতে শুরু করলো। বিশেষ বিশেষ জন বিশেষ ভাবে ডাকেন। তাদের ডাকা বিশেষ নাম গুলো

১। ছেরিয়া
২। সুরিয়া
৩।সুনিয়া
৪। সুরা
৫। সুরাতুন
৬। ছুরি

এবং সবশেষে যোগ হলো বস্তীর রাণী ছুরিয়া

ভাবুন অবস্থা। তাদের বিশেষ নাম ধরে ডাক শুনে হাত পা ছড়িয়ে কান্না শুরু করতাম। বাবা মাকে বলতাম কেনো রেখেছেন এই নাম?

যারা আমাকে এই নাম গুলো ধরে ডাকতেন তারা হলেন

ছেরিয়া বলে ডাকতেন আমার জেঠু, সুরিয়া বলে ডাকেন নানী
সুনিয়া বলে ডাকতেন এক বুবু
সুরা বলে ডাকতেন সমবয়সীরা
সুরাতন বলে ডাকতে যে বুবুর কাছে কুরআন পড়া শিখেছি, মাঝে মাঝে স্কুলে ধর্ম স্যারও ডাকতেন
ছুরি বলে ডাকতো পাড়ার  একটু বড় ভাইয়েরা। বিশেষ করে যাদের সাথে আমার দা কুড়াল সম্পর্ক ছিল একটা সময়।
আর সব শেষে  পপির সিনেমা দেখার পর সবাই একযোগে বলতো বস্তীর রাণী ছুরিয়া।
সেদিনও অনলাইন লুডু খেলতে এক গেইম পাটনারও বললো  বস্তীর রাণী ছুরিয়া Don’t kill
শুধু মা বাবা ভাইও গুটি কয়েক জন আমাকে আমার শুদ্ধ নাম ধরে ডাকতেন।

বিঃদ্রঃ এই পোস্ট পড়ার পরে আমাকে ভুলেও ঐ বিশেষ নাম গুলো ধরে ডাকবেন না । আর যদি কেউ ডাকেন তাদের সাথে দিয়ে দেবো আড়ি কইলাম😏

১৭৪জন ১০জন
11 Shares

২৫টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য