এই তো এখানে দাঁড়িয়ে ছিল সবুজ ঝলমলে
এক খণ্ড বনভূমি উঁচু নিচুর ঢাল বেয়ে উপত্যকা জুড়ে,
উজ্জ্বল প্রোজ্জ্বলে উচ্ছল প্রাণ উৎসবের সবুজ-শ্যামলে;

ঝিকিমিকি খর চৈত্র-দুপুর
জলভরাতুর ভারী মেঘ বৃষ্টি ভরা বান-জলে
ঠায়-থিতু হয়েই ছিল প্রবল ঘূর্ণি-বাতাসে;
সুরে সুরে গুনগুনিয়েছিল কত কত নাম না-জানা
পাখ-পাখালি, ভ্রমর, প্রজাপতি, মৌমাছি আর হরিয়াল;
বৃষ্টি-ধোয়া সবুজে দেহের বাঁকে বাঁকে
ভালোবাসা-বাসির প্রণয় নিঃশ্বাসের গোপন/প্রকাশ্য সুবাস।

এক হীন-গোধূলি-বেলায় বুনো বিস্ময়ের অসীম শূন্যতায়
অনুভব করি, উধাও হয়েছে সাধের বনাঞ্চলটি,
অর্থহীন বিপুল অনুনয় বিনয় পেছনে ফেলে;
এসিড বৃষ্টি/সিডোর/ভয়ঙ্কর ভূমিকম্প/ আম্ফান/বন্যা!!
নাকি কোন দানোর হুঙ্কারে চূর্ণ-বিচূর্ণ!
কেউ জানেনা;

শুধু ফেলে রেখে গেছে কিছু বিশীর্ণ-বিশুষ্ক লাল-হলুদ পাতা।

ছবি নেটের।

২৬৭জন ১২৭জন
0 Shares

১৮টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য