সোনেলা দিগন্তে জলসিড়ির ধারে

 

নিতান্তই অনন্যোপায় হয়ে,
মেনে নিতে হলো অপ্রত্যাশিত এই বিরহ।
অনাকাঙ্ক্ষিত এই বিরহী সময়কে,
সঙ্গে নিয়ে/ সঙ্গী করে দু’চোখের ক্যানভাসে-
এঁকে দিলাম স্বপ্নীল সুখের আল্পনা।

বড্ড ফ্যাকাসে হয়েছে সে আল্পনা।
তাই দেখে নিরূপায় হয়ে বেরিয়ে পড়লাম পথে,
পথে পথে ঘুরে ঘুরে বিভিন্ন রঙ নিলাম চেয়ে।

তুষার থেকে সাদা
কৃষ্ণচূড়া থেকে লাল
নীলাকাশ থেকে নীল
আবলুস থেকে কালো
সর্ষে ফুল থেকে হলুদ
গোধূলি থেকে ধূসর

প্রচণ্ড উত্তেজিত!
আর ফ্যাকাসে থাকবে না আমার আল্পনা।
সবগুলো রঙ নিয়ে বসে পড়লাম আল্পনা রাঙাতে,
এ কি! এতো গুলো রঙের স্পর্শেও রঙিন হলো না
কষ্ট পেয়ে হাল ছেড়ে দিলাম অবশেষে।
ঠিক তখনই রঙ গুলো সব-
চেঁচিয়ে উঠে বললো বোকা মেয়ে!
বিবর্ণ জীবনের আল্পনা কোনো রঙেই রাঙানো যায় না।

৬২৫জন ৫০৫জন
26 Shares

২৪টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

সাম্প্রতিক মন্তব্যসমূহ