চারিদিক হাহাকার! চারিদিক তৃষিত ভুমির বুকফাঁটা নিশ্বাস!মাথার উপর উত্তপ্ত দুপুর আমার !

মরুর বুকে ভাঙ্গাবাড়ির দেওয়ালে ,সবুজ শ্যাওলা জমে! ঝড়ের বুকে ধেয়ে আসা কাঁটা কাঁটা কয়েকটি শব্দে, ”কি রে? কেমন আছিস? বল”

মাঝে মাঝে আমার এলোমেলো শশ্মানের দিকে চোখ পড়লেই,আৎকে উঠি আমি!
দম বন্ধ হয়ে আসে,নির্জন ভাঙ্গা ঘরে!
যেন জীবন্ত লাশ বয়ে যায় সময়ধারায় !

পেছন না ফিরে সম্মুখ পানে এগিয়ে চলি,সুদূর দিগন্তের দিকে!যখন ফিরে তাকায়, গিরিখাতের কিনারায় পা আটকায় !

চলমান ভিড়ের নির্জন দ্বীপ থেকে ভেসে আসা শব্দে,
নিশীথরাতে পৃথিবীর বুকে সূর্য থামে!ক্লান্ত ঘাসে শিশির নামে! জাত – পাতের দ্বারে কড়া ভাঙ্গে!

বিনিসুতোর মুক্তোমালার মুক্তোগুলো, ভোরের সূর্য হয়ে ওঠে!মানব মনের নির্জন বেলাভূমির এক কোণে!

@ বাড়ি
তারিখ-০৮/১১/১২
সময়-১০ঃ২৭ রাত

১৯৬জন ১৯৬জন
0 Shares

৬টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য