বাংলাদেশের অনন্য সুন্দরতম স্থানগুলোর মধ্যে হলো অন্যতম হলো বৃহত্তর সিলেট জেলা। আর সিলেট জেলার গোয়াইনঘাট থানার বিছানাকান্দি হলো সুন্দর স্থানগুলোর মধ্যেও সুন্দরতম, যা ভারতের মেঘালয়ের মেঘের রাজ্যের একেবারে পাদদেশে অবস্থিত।
অনেক দিন বিছানাকান্দি যাওয়ার পরিকল্পনা করেও যাওয়া হয়ে উঠছিলোনা, শেষ পর্যন্ত ভ্রমণ বাংলাদেশের সাথে যখন যাওয়ার পরিকল্পনা করলাম তার কয়েকদিন আগে থেকেই খুব বৃষ্টি হচ্ছিলো। আমাদের যাওয়ার তারিখে যেনো অন্তত বৃষ্টি না হয় তার জন্য অনেক দোয়া দরূদ পড়লাম। কিন্তু আমরা ভোর ভেলায় সিলেটে নামার পর এমন মুসলধারে বৃষ্টি শুরু হলো যে, মনটা ভেঙ্গে গেলো।

কিন্তু কে জানতো ঐ বৃষ্টিতেই আসলে বিছানাকান্দির সেরা রূপটা আমরা দেখতে পেয়ে যাবো, যা পরে অনেকের জন্য আফসোসের কারণ ও হয়েছিলো বটে! বৃষ্টির জন্য ক্যামেরা চালানোটা বেশ কষ্টের ছিলো, তবু যেটুকু তুলতে পেরেছি তার কিছুটা নিয়েই আমার আজকের ছবি পোষ্ট।


(২) সিলেট শহর থেকে সিএনজিতে করে আমরা দেড় ঘন্টার পথ হাদারপার বাজার। হাদারপাড়ে এসেই ট্রলার নিতে হবে বিছানাকান্দি যাওয়ার জন্য। একটা ট্রলারে সর্বোচ্চ ১৬ জন যাওয়া যায়।


(৩/৪) প্রবল বৃষ্টি আর মেঘালয়ের পাহাড়ি ঢলে পিয়াইনের পানি গাছপালাকে অনেকটাই তলিয়ে দিয়েছিলো।


(৫) বিছানাকান্দির দিকে ছুটে চলা আমাদের ট্রলার।


(৬) পথঘাট বৃষ্টিতে তলিয়ে গিয়েছিলো সেদিন।


(৭) ওপারের মেঘালয় পাহাড়টা মেঘের মধ্যে হারিয়ে যেতে বসেছে প্রায়।


(৮) ঝুম বৃষ্টিতেও ওদের পাথর তোলার বিরাম নেই।


(৯) একটি নিঃসঙ্গ কুঁড়ে


(১০/১১) বৃষ্টিতে থেমে নেই কারো জীবন।


(১২/১৩) দূরে মেঘে ঢাকা পাহাড়ের ঐ পাদদেশটাই বিছানাকান্দি, বলতে পারেন স্বর্গের বিছানা।


(১৪) একটা ট্রলার নিয়ে আমাদের আগেই এসে পৌছেছে কিছু পর্যটক।


(১৫) আমরাও এক সময় নামলাম বিছানাকান্দির প্রায় ডুবে যাওয়া পাথরের স্তুপে।


(১৬/১৭) ঝুলন্ত ব্রীজের নিচ দিয়া ওপার থেকে প্রচন্ড গতিতে ছুটে আসছে পাহাড়ি ঢলের স্রোতধারা।


(১৮) ফিরে আসার আগে ভ্রমণ বাংলাদেশ টিমের একটা ফটোসেশন।


(১৯) অসম্ভব সুন্দর এই বিছানাকান্দিতে বার বার ফিরে আসতে ইচ্ছে করবে না এমন মানুষ খুঁঝে পাওয়া যাবে না।


(২০) সর্বশেষ বিছানাকান্দি বিজয়ী ক্যামেরাম্যানের একটা ছবি না হলে কি চলে?:D

২১৭জন ৭০জন
0 Shares

২৭টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য