আল্লাহর কাছে আবেদন।
২৬ নভেম্বর ২০১২
——————
বরাবর ,
মাননীয় আল্লাহ
দোজাহানের মালিক ,
ঠিকানা: ত্রিভুবন।

বিষয় : পরীক্ষা থেকে অব্যাহতি পাবার আবেদন ।
সুত্র : বাংলাদেশের সাধারণ মানুষের সাম্প্রতিক বিপর্যয় ।

জনাব/জনাবা ( লিঙ্গ জানিনা ) ,

উপর্যুক্ত সুত্র ও বিষয়ের আলোকে আপনার সদয় অবগতির জন্য বিনিত ভাবে জানাচ্ছি যে , এই জাহানের সবচেয়ে ধর্ম ভীরু মানুষ আমরা। আপনি নিশ্চয়ই অবগত আছেন যে , জগতের মাঝে সবচেয়ে বেশী মসজিদ , মাদ্রাসা আমাদের এই গরীব দেশে । ইসলাম যাতে কচু পাতার পানির মত অল্প ধাক্কাতেই পরে না যায় , এজন্য প্রতি বছর দেশে হাজার হাজার ওয়াজ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয় । আমরা সেসব ওয়াজ মাহফিলে অংশ নিয়ে ইসলাম কে কঠিন ভাবে নাইলনের দড়ি দিয়ে বেধে রেখেছি । যা এখন জোড়ে ঝাঁকুনি দিলেও পরে যাবে না। এই জাহানে আমরাই একমাত্র মুসলিম জাতি , যারা কথায় কথায় মিলাদ পড়াই। ওয়াজ মাহফিলে আপনার প্রেমে ইশক দিওয়ান হয়ে লাফ দিয়ে উঠি। গরীব ধনী সবাই চুরি, ছিনতা্‌ই,  লুট, ঘুষ নিয়ে হলেও কুরবানী দেই। আমাদের এই সব কর্মকাণ্ড প্রমাণ করে আপনার প্রতি আমাদের কঠিন আনুগত্য ।
কিন্তু আপনি আমাদের বার বার ইমানের পরীক্ষা নেন। আর কত পরীক্ষা নিবেন জনাব/জনাবা ? আমরা পরীক্ষা দিতে দিতে ক্লান্ত হয়ে পরেছি। ১৯৭১ এ ৩০ লাখ মানুষ জীবন দিয়েছেন, ২ লাখ মা বোন ধর্ষিতা হয়েছেন । প্রতি বছর বন্যা , সাইক্লোন , সিডর ইত্যাদি প্রাকৃতিক দুর্যোগে আমাদের অবস্থা খুবই খারাপ । যা আপনি অবগত । মাঝে মাঝে অগ্নিকান্ড বা গার্ডার ভেঙ্গে আমাদের কঠিন পরীক্ষা নেন । অনেক পরীক্ষা দিয়েছি হে আল্লাহ । আর দিতে চাইনা । আপনি এবার দয়া করে যারা এখন পর্যন্ত পরীক্ষার সম্মুখীন হয়নি কোনদিন তাদের পরীক্ষা নিন। আমাদের আপনি আর পরীক্ষা নিয়েন না ।

অতএব জনাব/জনাবা , আমাদের আর যেন পরীক্ষা দেয়া না লাগে তার সুব্যবস্থা গ্রহণ করলে বাধিত হব।
নিবেদক –
আপনার একান্ত বাধ্যগত বান্দা
জিসান শা ইকরাম

তারিখ : ২৬/১১/২০১২ ইং
বরিশাল
বাংলাদেশ ।

—————————————————————————–

রাজপুত্র এবং আমি।
২৬ নভেম্বর ২০১২
মৃত্যু উপত্যকায় থেকে মস্তিস্ক ওলট পালট । তাই একটি হিসেব এবং সিদ্ধান্ত —
এবার মালয়েশিয়া যাবার সময় বাসায় রাখা ২৮৭০ ডলার নিয়ে গেলাম। এয়ারপোর্টে গিয়ে ভাঙ্গালাম ৫০ ডলার।
কেনাকাটা করলাম ৩০০০ ডলারের বেশী। দেশে যখন ফিরলাম , আমার ব্যাগে ২৮২০ ডলার এবং ৩৪০ RM.
পিছনের একটি সংবাদ , এক লোককে আমি নাকি কবে একটি কাজ পাইয়ে দিয়েছিলাম। সে কাজে যে লাভ হয়েছে , তা দিয়ে দুই ভাই মালয়েশিয়া গিয়েছে। কৃতজ্ঞতা হিসেবে তাঁদের এই বদান্যতা । কিছুটা অস্বস্তি লাগলেও , তাঁদের আন্তরিকতার কাছে হার মানতে হয়েছে আমার।

সিদ্ধান্ত:
সিঙ্গাপুরে কেউ যদি একজনার একাউন্টে ডলার জমা করে , তাতে তার কি দোষ ? 😛
আমি অতি সাধারণ একজন হয়ে যদি এমন হয় – রাজপুত্রদের তো বিশাল কারবার।

—————————————————————————

রক্ত
২৬ নভেম্বর ২০১৩
এই জনপদে বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন বিদেশী রক্ত ঢুকে গেছে । ইচ্ছেয় হোক বা অনিচ্ছায় , শারীরিক বা মানসিক সঙ্গম জাত শ্রেণীর উদ্ভব অনেক আগে থেকেই । এরা মানসিক ভাবে আপসকামী । এরা মেনে নিতে অভ্যস্ত মীরজাফর , মোশতাক এবং রাজাকার ।

একজন বিশুদ্ধ বাঙ্গালী , যার রক্তে বাইরের কোন রক্ত মিশে যায়নি ,তাঁর মাঝে এই আপসকামিতা নেই । এরা কোনদিন মেনে নেয়নি মীরজাফর , মোশতাক এবং রাজাকারদের । মানবেও না ।

রক্ত প্রবাহিত হয় এক প্রজন্ম থেকে পরবর্তী প্রজন্ম। এটিই নিয়ম।

৫০২জন ২৪৯জন
79 Shares

৩৭টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য