বাংলা ছাড়ো

খসড়া ২৭ মার্চ ২০১৬, রবিবার, ১১:০১:৪৫পূর্বাহ্ন কবিতা, মুক্তিযুদ্ধ ২৩ মন্তব্য

রক্তচোখের আগুন মেখে ঝলসে-যাওয়া

আমার বছরগুলো

আজকে যখন হাতের মুঠোয়

কন্ঠনালী খুন পিয়াসী ছুরি,

কাজ কী তবে আগলে রেখে বুকের কাছে

কেউটে সাপের ঝাঁপি

আমার হাতেই নিলাম আমার

নির্ভতার চাবি;

তুমি আমার আকাশ থেকে

সরাও তোমার ছায়া,

তুমি বাংলা ছাড়ো ।

অনেক মাপের অনেক জুতোর দামে

তোমার হাতে দিয়েছি ফুল হৃদয়-সুরোভিত

সে-ফুল খুঁজে পায়নি তোমার

চিত্তরসের ছোঁয়া,

পেয়েছে শুধু কঠিন জুতোর তলা।

আজকে যখন  তাদের স্মৃতি

অসন্মানের বিষে

তিক্ত প্রাণে শ্বাপদ নখের জ্বালা

কাজ কি চোখের প্রসন্নতায়

লুকিয়ে রেখে প্রেতের অট্টহাসি!

আমার কাঁধেই নিলাম তুলে

আমার যত বোঝা;

তুমি আমার বাতাস থেকে

মোছো তোমার ধূলো,

তুমি বাংলা ছাড়ো ।

একাত্মতার স্বপ্ন বিনিময়ে

মেঘ চেয়েছি ভিজিয়ে নিতে

যখন পোড়া মাটি

বারে বারে তোমার খরা

আমার ক্ষেতেবসিয়ে গেছে ঘাঁটি।

আমার প্রীতি তোমার প্রতারণা

যোগ-বিয়োগে মিলিয়ে নিলে

তোমার লাভের জটিল অংকগুলো,

আমার কেবল হাড় জুড়োল

হতাশ্বাসের ধূলো।

আজকে যখন খুঁড়তে গিয়ে

নিজের কবরখানা

আপন খুলির কোদাল দেখি

সর্বনাশা বজ্র দিয়ে গড়া,

কাজ কি দ্বিধার বিষন্নতায়

বন্দি রেখে ঘৃণার অগ্নিগিরি!

আমার বুকেই ফিরিয়ে নেব

ক্ষিপ্ত বাজের থাবা;

তুমি আমার জলস্থলের

মাদুর থেকে নামো

তুমি বাংলা ছাড়ো ।

————————–কার লেখা কবিতা বলুন তো?  দেখি কে কে পারেন?

কবিতাটি শুনুন আমাদের জিসান ভাইয়ার আপলোডকৃত ভিডিওতে

৪৩৬জন ৪৩৬জন
0 Shares

২৩টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য