বসন্তের প্রত্যাবর্তন

সুপর্ণা ফাল্গুনী ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২০, শুক্রবার, ১২:০৭:৫৭অপরাহ্ন কবিতা ২৭ মন্তব্য

আম্রশাখে ফাগুন লেগেছে-
তাই দেখে দোয়েল,শালিক,চড়ুই দল বেঁধেছে।
তারি সাথে বুলবুলি,শ্যামা, টিয়ের নাচন লেগেছে।
কলিকারাশির গন্ধে,বর্ণে,রূপে প্রকৃতি মেতেছে;
কাক আলয়ে বসন্তের দূত উঁকি মেরেছে।
সিঁদুর রাঙা শিমুল পলাশে রঙ লেগেছে-
উলঙ্গিনী প্রকৃতির আবক্ষে।
প্রেয়স- প্রেয়সী বাসনার বৃত্তে আবদ্ধ
বসন্তের মলয়-সমীরে;
অলিরা গুনগুনিয়ে যায় দখিনা বাতায়নে,
প্রেমরস চুমে ছুঁয়ে যায় প্রকৃতির সিঁথিতে।

শিশিরভেজা শিঞ্জিনী শরমে তরুণীর নগ্ন পায়ে-
জড়িয়ে ধরে ভালোবাসার আলিঙ্গনে।
কুহক লেখনী কুসুম ফুটায়ে রচিছে-
ফাগুনের প্রণয়-কাহিনী নিঃশব্দ সঙ্গোপনে।
কুহেলী উত্তরীয় পবনে শূণ্যতায় যায় হারিয়ে,
পুষ্পরাশিতে পাতা ঝরা বসন্ত রাজমুকুটে সাজে।
ফাগুনের আগুনে বসন্তের কোকিল সাজে
অগনিত পাপিষ্ঠ জনে,
গদ্যে-পদ্যে বসন্তের সুর তুলে কাব্য জনে।

পিচ ঢালা পথ রক্তে ভিজেছিল ফাগুনে,
শীতের আহ্বানে,বসন্তের প্রত্যাবর্তনে-
ততো কুঁড়ি হয়নি অষ্টাদশী যুবতী
যতো আছে কাব্য-গানে।
কাঁঠালচাপা,কনকচাঁপা,চন্দ্রমল্লিকার সৌরভে-
নিসর্গ মাতোয়ারা নিরন্তর অবগাহনে।
বসন্ত এসেছে শিমুল বনে,বসন্ত এসেছে আম্র মুকুলে,
বসন্ত এসেছে প্রেমিক-প্রেমিকাদের মনে।
শুধু দ্রোহের অনল জ্বলছে বিশ্বব্রহ্মাণ্ডে,
জ্বলছে আরো মনুষ্যত্বের অন্তঃকরণে।

২১৪জন ৬২জন
5 Shares

২৭টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য