বন্য

নীলাঞ্জনা নীলা ১২ জুলাই ২০১৮, বৃহস্পতিবার, ১১:৫৪:৪৮পূর্বাহ্ন একান্ত অনুভূতি, কবিতা ১৪ মন্তব্য
ধনুকের মতো বেঁকে থাকা আলো-রঙের বন্যতা…

রোদের গা ছুঁয়ে ফড়িং মেলেছে ডানা,
আর আমি ম্যাপল পাতা হাতে নিয়ে বসে আছি রোদ লাগাবো বলে।
ঝর্ণার জলের ভেতর পানকৌড়ির মতো কেটেছি সাঁতার,
ডুবেছিলাম আমার ভেতরের “আমি”র মধ্যে।
তারপর ছুঁয়ে নিয়ে এসেছি এক আঁজলা প্রশান্তি, শুধু তোমাকে দেবো বলে।

তুমি জানো ধানের শিসে কীভাবে রোদ্দুর খেলা করে, আবার বৃষ্টিজল ভিঁজিয়ে দেয়!
ঠিক ওখানেই উপুড় করে ঢেকে রেখে এসেছি আমার নীরবতা,
তুমি ঢাকনা সরিয়ে নিলেই একশ আটটা প্রজাপতি নেচে উঠবে
তখন স্পর্শ করে দেখো, কী তীব্র বিচ্ছুরণ কচি আলোর ঝলকানিতে উদ্দাম হয়ে ওঠে!
ওই উদ্দামতা মানেই আমি।
তখন যদি বন্য হই,
দোষ দিওনা আমায়।

সেন্ট জোসেফ হাসপাতাল, হ্যামিল্টন, কানাডা
১৪ নভেম্বর, ২০১৭ ইং।

৪৩৮জন ৪২৯জন
5 Shares

১৪টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ