বন্যা আমার মেয়ে !

সুপায়ন বড়ুয়া ২৭ জুলাই ২০২০, সোমবার, ০১:৫৩:১১অপরাহ্ন কবিতা ২৭ মন্তব্য

আকাশ তুমি কাঁদছো কেনো আচল ঢাকা চোখে
তোমার চোখে কান্না দেখলে দেশটি জলে ভাসে।
বন্যা আমার আদুরে মেয়ে বাপের বাড়ি আসে
মায়ের চোখে খুশির ছলে বুকটা জলে ভাসে।

সাপ নেউলে খেলা করে বন্যা যখন আসে
ভয়ের ছোটে বুকটা আমার ভারী হয়ে আসে
মাঠ জুড়িয়ে পাকা ধানে খেলতো যখন বাতাস
মনটা আমার উজাড় করে নিতাম বড় শ্বাস।

বন্যা আমার মাঠ ডুবিয়ে পাকা ধানে ভাসে
হতাশ চোখে বুক ফেটে যায় ব্যর্থ দীর্ঘশ্বাসে।
আকাশ তুমি হাসো এবার চোখটা খুলে দেখো
সব কিছু আজ জলে ভাষে বাচিঁয়ে কিছু রেখো।

বন্যা আমার দুরন্তপনা নদী ভাঙন হাসে
ঘর বাড়ি শষ্য জমি সব জলে ভাসে।

তোমার বুকে সুয্যি মামা উঁকি দিয়ে দেখে
তাকে তুমি জায়গা দিও মেঘ সড়িয়ে রেখে।
বন্যা আমার অভিমানি যাবার সময় হলে
সবাই তাকে বিদায় দেবে সূর্যের দেখা পেলে।

বন্যা আমার বদমেজাজী রুদ্র রূপে আসে
বাপের বাড়ির আবর্জনা ধুঁয়ে দিয়ে ভাসে।
পঙ্কিলতার ভরা দিঘী ডুবিয়ে দিতে আসে
চাষ আবাদের পলি মাটি উর্বরতায় হাসে।

আকাশ তুমি শান্ত থেকো আর কান্না নয়
বন্যা আমার চলে যাবে সু্য্যি মামার ভয়।
শ্রাবন মাসের বাদলা দিনের হিসেব বুঝে লয়
বন্যা তোমার সানাই বাজে বিদায় দিতে হয়।

ছবি নেট থেকে

২৫২জন ১জন
0 Shares

২৭টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ