বর্তমান বিশ্বে বাংলাদেশ সহ অনেক অনেক দেশ ফ্রিল্যান্সিং সেক্টরে ভালো কাজ করে যাচ্ছে। এই ফ্রিল্যান্সিং সেক্টরে আপনি কী করবেন? কিভাবে এগোবেন তার জন্য অবশ্যই একটা ভালো গাইডলাইন লাগবে, তাইনা? আমি বরং আমার গল্পটাই শেয়ার করি। জেনে অবশ্যই আপনারা অনুপ্রাণিত হবেন।

আমি এ বিষয়ে আমার ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতার কথা আপনাদের সাথে শেয়ার করতে চাই। সমসাময়িক লেখালেখির বন্ধু নাজনীন পলির মাধ্যমে খবর পেয়ে ২০১৬ সালের ফেব্রুয়ারিতে বাংলাদেশ ব্যাংকের অফার করা Skills for Employment Investment Program (SEIP) প্রোগ্রামের আওতায় Graphic Design Course করেছি।

প্রফেশনাল গ্রাফিক ডিজাইন কোর্সের ঐ ৪ মাসে ফটোশপ ও ইলাস্ট্রেটর সফটওয়ারের টুলস শেখানো হয়। এবং এর সাথে যে কাজগুলো করে ইন্টারন্যাশনাল ও লোকাল মার্কেট প্লেসে কাজ করে আমরা কিভাবে ঘরে বসে ইনকাম করতে পারব তার গাইডলাইন দেয়া হয়।

ব্যক্তিগত জায়গা থেকে ততদিনে Official Job, School Teaching সবকিছুর প্রতি বিতৃষ্ণা এসেছিলো খুব। তাই বাসায় বসে ইনকাম করা যাবে এরকম পথই খুঁজছিলাম।

কোর্সের শুরুতেই আমাদেরকে বলা হয় ভালো ডিজাইনার হতে হলে শুধুমাত্র কোর্সের উপরে নির্ভরশীল হয়ে পড়ে থাকলে চলবে না। যুগের লাগাম কোন দিকে যাচ্ছে সেদিকটা খেয়ালে রাখতে হবে। ফ্যাশন, ট্রেন্ড বুঝতে হবে। একটা টপিকের উপরেই প্রচুর পড়াশুনা করতে হবে। এজন্য গুগল আর ইউটিউব আছে।

ফেসবুক এ অনেক এক্সপার্ট গ্রুপ আছে, সেসবে নিজেকে এড করে নিয়ে, তাদের কাজ নিয়মিত দেখতে হবে। অনলাইনের বিভিন্ন মার্কেটপ্লেসের কাজ দেখতে হবে।

কাজ শেখার পরে প্রথমে সেরা ডিজাইনগুলো কপি করতে হবে। বেশ ২০-৫০টা ডিজাইন কপি করার পরে নিজের মধ্যে নতুন আইডিয়া আসবে। তারপরে নিজে কোন ক্লায়েন্টের কাজের জন্যে অগ্রসর হতে হবে।

আমি ২০১৬ সালের মে মাসে ক্রিয়েটিভ আইটি ইন্সটিটুট থেকে কোর্স শেষ করলেও freelancer.com এ Business Card, Flyer, Professional Banner, Wedding Invitation Card এর Design Contest এ Participate করা শুরু করি ওই বছরের অক্টোবর মাস থেকে। এবং অক্টোবর থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত ৩ মাসে আমি ৩টি ডিজাইন কনটেস্টে উইন করে ৭৫ ডলার Earn করি।

এরপরে এপ্রিল ২০১৭ তে Flyer Design Contest ও Win করি।

গত সাত বছরে অভিজ্ঞতার ঝুলি ভারি হয়েছে বেশ। এখন আমার ডিরেক্ট ক্লায়েন্ট আছে। কাজ করছি লোকাল এবং ইন্টারন্যাশনাল মার্কেটে। এছাড়াও মাইক্রোস্টক মার্কেট নিয়েও কাজ করি।

আপনি যদি ফ্রিল্যন্সার হতে আগ্রহী হন তাহলে সবচেয়ে বেস্ট হয় আপনি কোন একটা কোর্সে ভর্তি হয়ে যান। এতে করে টিচারের মাধ্যমে Proper Guideline পাবেন। তাতে পয়সা যাই হোক উসুল হয়ে যাবে। সময়-শ্রমের বিনিময়ে আপনি সফলতা দেখতে পাবেন খুব অল্প সময়ে।

ফ্রিল্যান্সিং ও ক্যারিয়ার এর জন্য আপনি নিম্ন বর্নিত আইটেমগুলো শিখতে পারেন।

Logo Design
Business card design
Book Cover Design
Face Avatar
Landscpae Design
Clipping Path
Image Editing
Icon Design
Sketch & Art
Cartoon Drawing
Mandala Design
Pattern Design
Custom Typography
Social Media Post Design
Photo Retouch
Packaging Design
Manipulation
Movie/Drama Poster Design
Portfolio Creation
Market Place Account Detail
Social Media Marketing

একজনের পক্ষে কি এতগুলো আইটেমে দক্ষতা সম্ভব? হ্যাঁ, নিশ্চয়ই। আপনিও পারবেন। যদি থাকে আপনার আগ্রহ, ধৈর্য আর আপনার টিচারের দক্ষতা।

ইনশাল্লাহ আগামীতে আবারও আসবো আরও অনেক অনেক প্রফেশনাল গল্পের ঝুড়ি নিয়ে। আপাতত বিদায়।

সবার জন্য অফুরন্ত শুভেচ্ছা। আর প্রফেশনাল হবার আমন্ত্রণ। একটি সুন্দর বেকারত্ব হীন সমাজ গঠনের প্রত্যয়ে কাজ করে যাচ্ছি আমি। এই শুভ ইচ্ছার পাশে চাই আপনাদের সকলের সহযোগিতা, দোয়া ও ভালোবাসা।

২০৪জন ১০১জন
0 Shares

৫টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ