কিছু একটা লিখতে হবে বলে লিখতে বসলাম। স্বাভাবিক ভাবে কলম নিয়ে দু কদম আগানোর পর মনে হলো যা লিখছি তাতে যদি সুর ঢেলে দেয়া যায় তাহলে হয়তো গান হয়ে যেতে পারে, লেখাটা অর্ধেক শেষ করেই সুর দেয়া শুরু করলাম।

গলার অবস্থা কেরোসিন!!! স্বাভাবিক ভাবে কথা বলতে গেলেই হাঁসের মতো প্যাঁক প্যাঁক শব্দসহ অনেক কিছুই বের হয়। এমতাবস্থায় গান গাওয়া পাগলের কর্মকান্ড থেকেও অধম হবে নিঃসন্দেহে কিন্তু আমি কোন পেশাদার গায়ক নই, তাই হুট করে খালি গলায় একটা গান গাইতে আমাকে পেশাদার শিল্পীদের মতো সাত পাঁচ বা চৌদ্দ দশ ভাবতে হয়না। যখনই ভালো লাগবে তখনই গাইবো, হোক সেটা হেড়ে গলায় বা ফাটা গলায় তাতে কার কি!

কি হয়েছে জানিনা! তবে এটা জানি পাগলদের স্বাধীনতা সীমাহীন। আমার সীমাহীন স্বাধীনতার কিছুটা আজ কাজে লাগালাম বাকিটা সময় সুযোগ মতো লাগাবো। এবার তবে হাসুন, পাগলের পাগলামীতে কে না হাসে বলুন?

আমার মোবাইল ডিভাইসে নিজের কন্ঠটা ধারণ করে ভিডিও সংযুক্ত করে প্রকাশ করলাম, ভালো লাগার কোন নিশ্চয়তা নেই তবুও সকল মন্দলাগার দায় নিজের ঘাড়ে নিয়েই প্রকাশ করলাম। যদিও এটা নিছক পাগলামী তবুও আশা করি ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন। ধন্যবাদ সব্বাইকে।

খালি গলায় নিজের গাওয়া গান।
::: ফেরানো যাবেনা :::
কথা, সুর ও কন্ঠ : জবরুল আলম সুমন

ইউটিউবে গানটি দেখতে ও শুনতে এখানে ক্লিক করুন। যারা ইউটিউবে ঢুকতে অসমর্থ তারা ফেসবুকের গ্রুপ চারুকন্ঠে ঢুকে গানটি ডাউনলোড করে শুনে নিতে পারেন…

২১৭জন ২১৭জন
0 Shares

৭টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য