ফুলটোক্কা

বন্যা লিপি ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, বৃহস্পতিবার, ০৩:১৬:৪৮পূর্বাহ্ন একান্ত অনুভূতি ৯ মন্তব্য

/ ফুলটোক্কা-

লেবাস চড়িয়ে হাঁটতে বের হওয়া যেতেই পারে। যেতে পারে ফুলটোক্কায় অংশ নেয়া!

তারপর সেঁধিয়ে যেতে ইচ্ছে হলে; বড়জোড় আষাঢ় কিংবা শ্রাবণের মধভাগ ছিঁড়েখুঁড়ে একটা শুভ্র সাদা মেঘ নিয়ে খেলা যেতে পারে এক্কাদোক্কা!

সন্তপর্ণে ঢাক – রাখ রেখেই হাত পৌঁছে দেয়া যেতে পারে কোনো পৌরাণিক খোলা বইয়ের পৃষ্ঠায়।

আমি নির্বাক চোখ

নিশ্চুপ ঠোঁট এঁটে শুধু লেবাসটাই দেখছি।

অতল অভিপ্সার ডামাডোল কানে এসে ঠেকেনি বলে….

আমি শুধু চড়ানো লেবাসটুকুর পরিচয় বলতে পারি….

/ বেনামী-

আমি অতল থেকে জেগে উঠতে চাওয়া এক মাস্তল ভাঙা জাহাজের নাবিক। সময়ের ফাঁক খুঁজে চলি রক্তের ঢেউ সাঁতরে। যে সমুদ্রের নাম নেই… সেখানেই বালুচরে বেঁধেছি ঘর। উপুর হয়ে থাকা আকাশের দিকে বুক চিতিয়ে দাঁড়িয়ে করে যাই চিৎকার। নালিশ নয়, নয় অভিশাপ- সময় বলে দেবে সময়ের দায়ভার.…

 

/ অচীন-

বটবৃক্ষের মত হইনি

হলে ভালো হতো।

মাটির মত হতে চেয়ে…

হলে ভালো হতো।

হিজলের মত হইনি….

হলে ভালো হতো।

ঘাসের মত হইনি….

হলে ভালো হতো।

পাথরের মত হইনি….

হলে– ভালো হতো।

তুলোর মতও হইনি….

হলে ভালো হতো–

ভীষণতরো বৃষ্টি ভালবাসি বলে.…

মেঘ খুঁজতে খুঁজতে ভুলেই গেছি

আমি কার মত!¡

 

ছবি- সোনেলা গ্যালারি থেকে।

১৪৮জন ৬৩জন
0 Shares

৯টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ