ফুটপাতে কবিতার ঈশ্বর

পারভীন সুলতানা ২৭ জানুয়ারী ২০১৬, বুধবার, ১১:৩৭:২০অপরাহ্ন কবিতা ১৫ মন্তব্য

ফুটপাতে এখন গাঢ় অন্ধকার,
সারিবদ্ধ মানুষের ক্লান্ত শয়ান,
এদিক ওদিক কুক্কুরী আর কুকুর পাহারাদার ।
কথা কয় গাছ আর গাছের সঙ্গী পুরুষ।
ফুটপাতে ছেড়া কাগজ, টিনের কৌটা ভাঙ্গা বোতল।
নদীর করাল গ্রাস, ভেসে এল নতুন খাতার পাতা
এঁটো খায়, ভিখ মাঙ্গে শহর বন্দর রাস্তায় ।
এক টুকরো মলিন কাগজ, উৎকীর্ণ কবিতা,
কবিতায় মুগ্ধ বাতাস, উঠে এল আঙ্গিনায় ।
ঘর মোছে , ঝাঁট দেয়
কচি বাহু শিশুর মুখে ধরে দুধের বোতল ।
কে শিশু? তন্ন তন্ন করে খোঁজে
শিশু আর বয়সন্ধি সুত্র যুতসই উপাত্ত ধরে ;
রক্ষকই ভক্ষক, পিতা যেমন তেমন পুরুষই ক্ষমতাধর।
কবিতা পাখি হয়, বাতাসে উড়ে বেড়ায় শাখা বিশাখায়।
কবিতার বয়সন্ধি ,শাড়িতে ভালই মানায়
ছিন্নমূল মানুষের রাতের বাসর। হা-অন্ন দেহ ফিসফিস কথা কয়।
কাগজে উৎকীর্ণ কবিতা ছিন্নভিন্ন এখন
প্রায়শই ধর্ষিত হয় আতঙ্কিত ভালবাসায়;
আদিম উষ্ণতায় আদি-অন্ত খেলায় ।
কবিতা নিশ্চুপ তখন।
অথচ এই কবিতা, কবিতার ছোট্ট খুকু এখন বৃক্ষ শরীর ।
উড়ো ঝড়, উত্তাল প্লাবন কিংবা মাটিকাঁপা ভুমিকম্পন
নিরুদ্বেগ নির্ভয় নিরুত্তাপ বাসী জীবন ।
কবিতা তুমি কেমন আছ ? কি তোমার আজন্ম পাপ ?
কি ধর্ম তোমার ?
কোথায় ফুটপাতে তোমার করুনাময় ঈশ্বর ?
১৮/১২/১৫

২৯৬জন ৩০৮জন
0 Shares

১৫টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য