প্রিয় সোনারা,

একটি নির্মল, আনন্দময়, কলকাকলি মুখরিত ব্লগের প্রত্যয় নিয়ে সোনেলা ব্লগের যাত্রা শুরু হয়েছিল। প্রায় পাঁচ বছরের ব্লগ জগতে পরিভ্রমণ আমাদের কাছে আনন্দ বেদনার কাব্য হিসেবেই বিবেচিত হয়ে আছে। যদিও
প্রতিবন্ধকতাময় পরিভ্রমন, তবুও আমাদের সাথে ভ্রমণ সঙ্গী হয়েছেন আপনাদের মত আন্তরিক কিছু মানুষ যারা এক একজন খাঁটি সোনা হিসেবেই বিবেচিত হয়ে আছেন সোনেলার কাছে।
সোনেলার উঠোনে আপনাদের সরব আন্তরিক উপস্থিতি এই ব্লগকে, অন্য যে কোন ব্লগ থেকে স্বাতন্ত্রতা দান করেছে।
যে সমস্ত লেখক নিয়মিত লেখালেখিতে অভ্যস্ত তারা যেমন এই ব্লগে আছেন তেমনি আছেন একেবারে নতুন লেখক যাদের লেখালেখির হাতেখড়ি এই ব্লগে। একসময় লিখতেন মাঝে দীর্ঘ বছর বিরতি, তারাও আবার এই সোনেলার মাধ্যমে সৃষ্টিশীল জগতে প্রত্যাবর্তন করেছেন।

একটি ব্লগে খুব বেশি একটিভ ব্লগার থাকেন না। অন্যান্য ব্লগের তুলনায় সংখ্যানুপাতিক হিসেবে সোনেলায় একটিভ ব্লগার ঈর্ষণীয়। এখানে আছেন প্রচুর পাঠক, যারা শুধু লেখা পাঠ করেই তাদের দায়িত্ব শেষ করেন না, লেখককে মন্তব্য দিয়ে উৎসাহিতকরণের পাশাপাশি, গঠনমূলক আলোচনায় অংশ নিয়ে সুচিন্তিত মতামত প্রকাশ করে থাকেন।
নীতির প্রশ্নে আপোষহীন, পরিচ্ছন্ন, গালাগালি মুক্ত একটি ব্লগ প্রতিষ্ঠার যে স্বপ্ন আমাদের ছিল, আপনাদের সম্মিলিত প্র‍য়াসে তা বাস্তবায়ন করা সম্ভব হয়েছে।

সোনেলার ২য় ই-বুক প্রকাশিত হবে আগামী পহেলা বৈশাখ। বৈশাখ উপলক্ষ্যে বিভিন্ন লেখা এবং চিঠি প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়া চিঠিসমুহ নিয়ে প্রকাশিত হবে এই ই-বুক ‘সোনেলার বৈশাখ’। প্রতিযোগিতায় সোনেলায় পোস্ট করা প্রতিটি চিঠিই বিভিন্ন ক্ষেত্রে অত্যন্ত মান সম্পন্ন। চিঠি বাছাই করে স্থান নির্ধারন করা নির্বাচকদের কাছে ছিল অত্যন্ত কঠিন এক কাজ। নির্বাচক মন্ডলীর নির্বাচন আবেগের ঊর্ধ্বে থেকে, নিরপেক্ষতা বজায় রেখেই করা হয়েছে। এতে মনক্ষুন্ন না হবার জন্য সবার কাছে অনুরোধ করছি। যারা প্রথম পাঁচে স্থান করে নেবেন তারা তো আপনার আমার একই বাড়ির উঠোন, আংগিনা, বাগানের একজন। তাদের এই স্থান করে নেয়া আমাদের সোনাদের সকলেরই আনন্দ। চিঠি পোস্ট করা পত্র লেখক এবং ম্যাগাজিনে প্রকাশিত সমস্ত লেখক, কবি, ব্লগারকে সোনেলার পক্ষ থেকে আন্তরিক শুভেচ্ছা জানাচ্ছি।

এই ই-বুক প্রস্তুত করেছেন প্রহেলিকা। এর আকর্ষণীয় প্রচ্ছদটিও তারই করা। চিঠির মাঝে দেয়া ছবিগুলো সংগ্রহ করা এবং চিঠি সম্পাদনা করার মত কঠিন কাজটিও করেছেন শুন্য শুন্যালয়। এ ব্যাতিত সর্ব বিষয়ে পরামর্শ দিয়েছে ছাইরাছ হেলাল। তাদের সম্মিলিত অক্লান্ত পরিশ্রমের ফসল এই ই-বুক ‘সোনেলার বৈশাখ’। ব্লগ পরিবারের সবার পক্ষ থেকে তাদেরকেও জানাই আন্তরিক শুভেচ্ছা।

সবাই ভাল থাকুন। আগত নতুন বছরের প্রতিটি দিন হোক আনন্দময়। সোনালী রোদ হাসুক আমাদের জীবনে।

শুভেচ্ছান্তে_____
জিসান শা ইকরাম
————————————–
পোস্টম্যানরা সবার চিঠি পৌঁছে দেয় কিন্তু তাদের লেখা চিঠি হয় সমাপ্ত হয়না কিংবা পোস্ট করাই আর হয়না।

৫৩৩জন ৫৩৩জন
0 Shares

২২টি মন্তব্য

  • গাজী বুরহান

    “এখানে
    আছেন প্রচুর পাঠক, যারা শুধু লেখা
    পাঠ করেই তাদের দায়িত্ব শেষ
    করেন না, লেখককে মন্তব্য দিয়ে
    উৎসাহিতকরণের পাশাপাশি,
    গঠনমূলক আলোচনায় অংশ নিয়ে
    সুচিন্তিত মতামত প্রকাশ করে
    থাকেন।
    নীতির প্রশ্নে আপোষহীন, পরিচ্ছন্ন,
    গালাগালি মুক্ত একটি ব্লগ
    প্রতিষ্ঠার যে স্বপ্ন আমাদের ছিল,
    আপনাদের সম্মিলিত প্রয়াসে তা
    বাস্তবায়ন করা সম্ভব হয়েছে।”

    একদম সত্যি কথা।

  • মিষ্টি জিন

    আমি কখন ও কোন ব্লগে লিখিনি। ব্লগ কি তা জানতাম ও না। সোনেলায় ই প্রথম লিখেছি।এখানকার সব ব্লগাররাই খুব ভাল। সবার কাছ থেকে বেশ অনুপ্রেরনা পাই লেখার।
    চিঠি প্রতিযোগিতার এবং ই বুকের মত এত ভালো একটা আয়োজনের জন্য প্রহেলিকাভাই এবং ব্লগ কতৃপক্ষকে ধন্যবাদ ।
    সম্পাদনা কাজটাই অনেক কঠিন । ৩১ টা চিঠি সম্পাদনার করা যেমন তেমন ব্যাপার না। কারন আমরা লেখায় প্রচুর বানান ভুল করি। এই কঠিন কাজটি সুসম্পন্ন করার জন্য শূন্য শুন্যালয়কে অসংখ্য ধন্যবাদ।
    সর্বপরি এই আয়েজনের জন্য সোনেলার পুরো টিমকেই অসংখ্য ধন্যবাদ।
    সোনেলার সাথে আছি ,থাকবো।

  • ইঞ্জা

    গল্পের গ ও জানতামনা, ব্লগিং কি, কিভাবে হয় তাও জানতামনা, সোনেলায় আপনার মাধম্যেই আসা ভাইজান, এসে নতুন কিছু প্রিয় মানুষ পেলাম, হেলাল ভাইজান, নীলাপু, রিতু আপু, মিষ্টি জিন আপু, শুন্যাপু, রুবাপু, আকিদাপু সহ অনেক আপুকে পেলাম, ভাইদের মধ্যে পেলাম হেলাল ভাই, সারোয়ার ভাই, আনিছ ভাই, মমি ভাই, প্রহেলিকা সহ অনেকেই আছেন আর সবার আগ্রহই আমাকে গল্প লিখতে উৎসাহি করে তুলে।
    এই ব্লগ আমাকে অনেক ভালোবাসা দিচ্ছে আর আমিও লুটেপুটে নিচ্ছি সবার ভালোবাসা, ধন্যবাদ সোনেলা আমাকে নিজের সোনা মনে করে আপন করায়।

  • আবু খায়ের আনিছ

    বেশ প্রসংশনীয় উদ্যোগ এটি, প্রহেলিকাকে আবারো অসংখ্য ধন্যবাদ এমন একটি উদ্যোগ নেওয়ার জন্য, সাথে সোনেলা কতৃপক্ষকেও ধন্যবাদ তারা এমন একটি উদ্যোগে সাড়া দিয়েছেন বলে। শুভ কামনা সোনেলা।

  • ছাইরাছ হেলাল

    চেনা -অচেনার পথ ধরে,
    হেঁটে যাই নিয়ত-নিয়মিত
    নিঃসীম নিস্পৃহতায়,
    কেউ থাকে কেউ হারায়;
    দুয়োর দুদি সোনেলা
    মুখর আজ দুদ্দরিতায়,
    দূরায়ণী ধ্বনিতে
    তা শোনা যায়।

    ***********************************************

    One does not write a poem with ideas, One writes it with good words.————Stephane Mallarme.

  • ইকরাম মাহমুদ

    আমি টুকটাক কি না কি লিখি, তাও আবার একটা স্বনামধন্য ব্লগে। যিনি ব্লগে লিখেন তাকে ব্লগার বলা হয়। সংগাটা বোধহয় এতটুকুতেই শেষ নয়। আমি সোনেলা ব্লগে লিখি কিন্তু নিজেকে ব্লগার দাবি করতে সংকোচ জাগে। এ সংকোচের কারণ একটাই, এতো এতো লেখকের লেখার সামনে আমি নগণ্য। মনে হয় ব্লগিং এর সব শর্তই আমি পূরণ করিনা।
    যাই হোক, প্রহেলিকা ভাইকে অনেক অনেক শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা। প্রতিযোগিতায় বাছাই পর্বটা কি যে কঠিন একটা কাজ তা বুঝেছি যখন দুটি চিঠিকে ভোট দিতে বলা হয়েছিল। ব্লগটিমের পক্ষে কাজটা কতোটা কঠিন তা বুঝতেই পারছি। শর্ত সাপেক্ষে আমরা লেখার পাশে প্রতিযোগিতা শব্দটি ব্যবহার করেছি, এতটুকুই।

  • মৌনতা রিতু

    সত্যি ভাইয়া, খুবই ভাল একটা উদ্যোগ এটা। আমি তো সব সময়ই বলি, আমার এক নতুন জন্ম এই ব্লগে। আমি বুক ফুলিয়ে যে, আমি সোনেলা ব্লগে লেখি। সেদিন খুব প্রিয় একজন আমায় জিজ্ঞেস করছিল,” তোমার সোনেলা মানে কি?” তাকে বলেছি অনেক এই ব্লগ সম্পর্কে।
    সত্যিই আমাদের ব্লগটা একটা পরিবার। প্রতিযোগীতা হয়ে উঠে এসছে অনেক দারুন দারুন সব লেখা।
    প্রহেলিকার ঘাড় সামলানো এখন শুধু বাকি :p উনি খুব খুটতেছে। দোয়া করি ঘাড় তার সহিসালামত থাকুক।

  • ইলিয়াস মাসুদ

    ব্লগে লিখা তো দূরের কথা কখনো ব্লগে ঢুঁ মাড়তেও খুব ঘিন ঘিন করতো মনের কাছে,কিন্তু হঠাৎ একদিন সোনেলাতে গিয়ে আমার ধারণায় বদলে গেল,আমার মনে আছে আমি একনাগাড়ে সাত আট দিন অজস্র লিখা পড়েছি,মন্তব্য পড়েছি,তার পর থেকে সোনেলার প্রতি আমার একটা টান অনূভব করি,লিখা লিখি আমাকে দিয়ে হয় না তার পরেও সেই আমি মাঝে মাঝে লিখেফেলি মনে যা আসে,সেই লিখা এখানের সবাই এত এত আপন করে পড়ে যে নিজেকে আপ্লুত করে।সেই একজনের সবচেয়ে প্রিয় বন্ধু যে কান পেতে কথা শোনে,আমার বাস্তবে তেমন বন্ধু এখন আর নেই,কিন্তু সেই জায়গাটা পুরোন হয়ে যায় সোনেলাতে এলে।যেখানেই থাকি যত ব্যাস্তই থাকি সোনেলাতে আমাকে দিনে একবার হলেও আস্তেই হয়,এই টান টা আমার নেশার মত হয়ে গেছে এখন,লিখতে না, বলতে না,শুধু পড়তে হলেও আসতে ইচ্ছে করে।

    সবাইকে দিয়ে সব কাজ হয় না,কেউ কেউ থাকেন যাঁরা সেই কাজের যোগ্য হয়ে উঠেন নিজ যোগ্যতায়,নিজ গরজে,শুন্য,প্রহেলিকা ঠিক তেমন।
    অনেক সুন্দর কিছুর জন্য ভীষণ অপেক্ষার নাম সোনেলার ই-ম্যাগাজিন

  • মনির হোসেন মমি(মা মাটি দেশ)

    আমি বিভিন্ন ব্লগে যখন আয়ামেজাহালিয়ামের যুগ চলছিল তখনি এ ব্লগে একটু শান্তি পেলাম।পেলাম স্নেহ আর শিক্ষাগুরুর মতো শিক্ষক ভাই বন্ধু।অবশ্যই কৃতজ্ঞ সোনেলা ব্লগের কর্তৃপক্ষের নিকট।দীর্ঘ এ সময়টুকুতে লেখা লেখির স্থান করে দেয়ার।শুভ কামনা আগামী পথ চলা। -{@

  • মেহেরী তাজ

    সোনেলা আমায় অনেক কিছু দিয়েছে। সম্মান,স্নেহ, ভালোবাসা। এই সোনেলা আমায় দিয়েছে দামী কিছু সম্পর্ক । আমি কৃতজ্ঞ সোনেলার কাছে। আমি কৃতজ্ঞ সেই সম্মানী ব্যক্তির কাছে যে আমায় অভয় দিয়ে বলেছিলেন “আসুন একবার পড়ে দেখুন আমাদের ছোট্ট ব্লগ টাকে”।

    এবার আসি ই-বুকে। ই-বুকের প্রস্তুত ও প্রকাশের সাথে সম্পর্কিত সকল শ্রদ্ধেয় বড় ভাইয়া ও আপুকে জানাই আন্তরিক শুভেচ্ছা ও কৃতজ্ঞতা।

    সোনেলার সাথে আরো অনেক অনেক অনেক ই-বুক তৈরীর সাক্ষী হওয়ার ইচ্ছা জ্ঞাপন করছি।

  • শুন্য শুন্যালয়

    খুব অপেক্ষায় ছিলাম প্রতিযোগিতায় আপনার চিঠি পাবো কিন্তুু পাইনি। সত্যিই রানাররা কাউকে চিঠি লেখার সময় পায়না।
    এই ই – ম্যাগাজিন, প্রতিযোগিতা সব নিয়ে আমি উচ্ছ্বসিত। কিছু কাজে আনন্দ পাওয়া যায় লাভ ক্ষতি না মেনেই। যেমন এই সোনেলা ব্লগ চালু হওয়া।
    আমাদের প্রিয় ব্লগের সব আনন্দের পাশে থাকতে চাই। অনেক ধন্যবাদ আপনাকে আমাকে সোনেলায় আনবার জন্য, -{@

  • মোঃ মজিবর রহমান

    সুহৃদ ভাইয়া, লেখা পড়েছি পূর্বেই কিন্তু মন্তব্য দিলাম পরে।

    দিল সাফ, মন সাফ, ক্ষেত্র পরিস্কার সাফ। অনেক অনেক ব্যাক্টির লড়াই থাকবে কিন্তু সেটা হোক সাধুতার মধ্যে, হোক ভদ্রতার মাঝে। সেটা সোনেলায় আছে। আর থাকবে আশা করি।
    আপনাকে শুভেচ্চছা নিরন্তর।
    -{@

  • নীহারিকা

    ই-বুকের জন্য চমৎকার একটি প্রচ্ছদ এবং গোটা ই-বুক প্রস্তুতুতকারক প্রহেলিকা, ছবি এবং চিঠি সম্পাদক শুন্য শুন্যালয়, প্রধান উপদেষ্টা ছাইরাছ হেলাল ভাই এবং পোস্টম্যান জিসান শা ইকরাম ভাইকে গভীর শ্রদ্ধা ও কৃতজ্ঞতা। একটি ব্লগকে সচল, সুন্দর ও বেগবান রাখতে এমন উদ্যোগ প্রশংসনীয়। তবে একটি প্রতিযোগিতা ও ই-বুকের মত বিশাল একটি কাজ হাতে নেয়া সহজ কথা নয়। আমরাতো চিঠি আর লেখা পোস্ট করে গালে হাত দিয়ে বসে অপেক্ষা করছি। কিন্ত যে চারজন পর্দার পেছনে কাজ করছেন, তারাই কেবল জানেন কতটুকু কষ্ট তাদের করছে হচ্ছে।
    সবশেষে ই-বুকের সাফল্য কামনা করছি আর অপেক্ষা করছি পয়লা বৈশাখের সেই মুহূর্তটির যখন দেখতে পাবো সেই ই- বুকটি।

  • নীলাঞ্জনা নীলা

    নানা আমি কৃতজ্ঞ তোমার কাছে ব্লগের সাথে পরিচয় করিয়ে দিয়েছো তুমি। একদিন সোনেলাতে নিয়েও এলে তুমি। তা নইলে কি আর কাউকে চিনতাম, জানতাম? সোনেলার সাথে আছি এবং থাকবো।

    শুন্য আপু, কুবিরাজ ভাই, প্রহেলিকা ধন্যবাদ জ্ঞাপন করছি, শুধু তাই-ই নয় উনাদের সকলের জন্য আমার শুভকামনা।
    অধীর আগ্রহ নিয়ে অপেক্ষায় আছি ই-বুকের। পহেলা বৈশাখের জন্য বহু বছর হয়ে গেলো অপেক্ষা করিনা। এবারকার অপেক্ষা সেই শমশেরনগর বাগানে থাকার সময়কার মতো। বিশ্বাস করতে পারো নানা?

    অনেক ভালো থেকো। -{@

  • ব্লগার সজীব

    সোনেলার সাথে ছিলাম,আছি,থাকব। সোনেলা আর ব্লগার সজীব দুজনে দুজনার। ব্লগার সজীবের একটিই শাখা সোনেলায়, আর কোথাও কোন শাখা নেই 🙂

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

সাম্প্রতিক মন্তব্যসমূহ

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ