কারও জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানানো আমার কাছে যেমন আনন্দের তেমনি কিছুটা বেদনারও বটে। আনন্দের এ কারনে এই দিনেই সে পৃথিবীতে এসেছিলো। পরিবারের অনাবিল সুখ-শান্তি, সবার হাসিমুখ, কত স্মৃতি!!

বেদনার কারন হচ্ছে জীবনে একটি করে জন্মদিন আসে আর জীবন থেকে একটি করে বছর চলে যায়। মনে হয় আর বুঝি বেশী দেরি নেই! যদিও এসব আমার একান্ত ব্যক্তিগত চিন্তাভাবনা। কিন্তু তারপরেও আমরা হাসিমুখ পছন্দ করি। আনন্দ উৎসব করতে ভালোবাসি। আমিও যে এর ব্যতিক্রম নই!

আর সে কারনেই গোপন ইচ্ছেরা নাড়াচাড়া করে মাথার ভিতর, হৃদয়ে-মননে। মনে হয় জানাই তাকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা অন্তর থেকে। এতে যদি তার হাসিমাখা মুখ একটু হলেও দেখা যায় এটাই অনেক বড় প্রাপ্তি। সেখানে যার জন্মদিন তিনি একজন লেখক হলেতো আর কথাই নেই।

আজ যার জন্মদিন তিনি আর কেউ নন, আমার আমাদের সবার প্রিয় ব্লগার শবনম। ০৭ অক্টোবর বাবা মা’র মুখ আলোকিত করে সেই যে এসেছিলেন এই ধরাধামে সে আলো অদ্যাবধি ক্ষনিকের জন্যেও ম্লান হয়নি। আমি তাকে ব্যক্তিগতভাবে চিনি জানি বহু দিন মাস বছর ধরে। আজ পর্যন্ত তার একটি ভূলও চোখে পড়েনি আমার। সত্যিই আশ্চর্য লাগে আমার কাছে।

সাহিত্য নিয়ে পড়াশুনা করা একজন মানুষ নিজের সবকিছু নিখুঁতভাবে কি করে সামলান তা আজও আমার কাছে অজানা। আমার ধারনা তারা লেখক কিংবা সাহিত্যিক হিসেবে নিজেরা অগোছালো টাইপ মানুষ। এই ভুল যিনি ভাঙিয়ে দিয়েছেন তিনি শবনম। আমার খুব কাছের প্রিয় একজন মানুষ।

শবনম, আজকের এই শুভদিনে আপনাকে অনেক অনেক শুভেচ্ছা জানাচ্ছি। সোনেলা ব্লগ আপনার মত মিষ্টভাষী, সদালাপী এবং চৌকশ বুদ্ধিমত্তার লেখক পেয়ে সত্যিই আনন্দিত।

ভালো থাকবেন সবসময়, কখনো যেন শুনতে না হয় আপনি ভালো নেই। শুধু প্রয়োজনে নয়, আমার নিজের অস্তিত্বের সঙ্গী হিসেবে পাশেই আছি সবসময়।

ভালোবাসা জানবেন।

২৪৯জন ৪জন
94 Shares

৫৬টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য