প্রিয় কবিতা

বায়রনিক শুভ্র ৩১ মে ২০১৩, শুক্রবার, ০৫:৫৭:২২অপরাহ্ন কবিতা, বিবিধ ১৩ মন্তব্য

বড়ো চরিত্রহীন হয়ে যাচ্ছি আজকাল
সোনারপাতে মুড়ে চরিত্র কে আর বুঝি
বেধে রাখতে পারলাম না,
মহৎ,জ্ঞানী,মহাজনদের তকতকে জীবনী পড়েও
কিছু হল না

দেয়ালে শয়তানের ছবি টাঙিয়ে দুধ-কলা দিয়ে
নিত্য আরাধনা করছি
সমুদ্রের ভাটার মত চরিত্র আমাকে শুধু
নামিয়ে নিয়ে যাচ্ছে,

এখনও পথে ঘাটে সুন্দরি মেয়ে দেখলে আমি পিছু নেই,
বিপনবিতানে পাচমাইল হেঁটে পাচজন মহিলাকে জরিপ করি
আমার বন্ধুরা যখন নারির মধ্যে প্রেম খুজে বেড়ান
আমি তখন প্রেমের মধ্যে নারিকে খুজি।

ধর্ম কর্মের সাথে দুর্ঘটনা ঘটাবর ভয়ে তিনপা পিছিয়ে এসে,
কখনো রেলওয়ে ম্যানসের পবিত্র দ্বিতলে রঙিন পানির মধ্যে আত্ম দর্শন করি।
সকলেই আমার প্রতি ছিছি করে কোরাস গাইতে থাকেন।
মহত্তের খেতাবধারী ব্যাক্তিরা সবাই একজোটে আমাকে প্রতিদিন অনুকম্পার কনসার্ট বাজিয়ে শোনান

এবং সকলেই আমাকে ঘৃণা করেন
আমার কণ্ঠলগ্ন মহিলাটা সহ
তাদের আশীর্বাদে আমি অনিবার্যপতনের পথে এগিয়ে যাচ্ছি।

এই কবিতাটি আমি শুনছি প্রায় ৩ বছর ধরে নিয়মিত । কিন্তু এখনও কার লেখা কবিতা উদ্ধার করতে পারি নি ।

 

বেণীমাধব, বেণীমাধব, তোমার বাড়ি যাবো
বেণীমাধব, তুমি কি আর আমার কথা ভাবো?
বেণীমাধব, মোহনবাঁশি তমাল তরুমূলে
বাজিয়েছিলে, আমি তখন মালতী ইস্কুলে
ডেস্কে বসে অঙ্ক করি, ছোট্ট ক্লাসঘর
বাইরে দিদিমণির পাশে দিদিমণির বর
আমি তখন নবম শ্রেণী, আমি তখন শাড়ি
আলাপ হলো, বেণীমাধব, সুলেখাদের বাড়ি

বেণীমাধব, বেণীমাধব, লেখাপড়ায় ভালো
শহর থেকে বেড়াতে এলে, আমার রঙ কালো
তোমায় দেখে এক দৌড়ে পালিয়ে গেছি ঘরে
বেণীমাধব, আমার বাবা দোকানে কাজ করে
কুঞ্জে অলি গুঞ্জে তবু, ফুটেছে মঞ্জরী
সন্ধেবেলা পড়তে বসে অঙ্কে ভুল করি
আমি তখন নবম শ্রেণী, আমি তখন ষোল
ব্রীজের ধারে, বেণীমাধব, লুকিয়ে দেখা হলো

বেণীমাধব, বেণীমাধব, এতদিনের পরে
সত্যি বলো, সে সব কথা এখনো মনে পড়ে?
সে সব কথা বলেছো তুমি তোমার প্রেমিকাকে?
আমি কেবল একটি দিন তোমার পাশে তাকে
দেখেছিলাম আলোর নীচে; অপূর্ব সে আলো!
স্বীকার করি, দুজনকেই মানিয়েছিল ভালো
জুড়িয়ে দিলো চোখ আমার, পুড়িয়ে দিলো চোখ
বাড়িতে এসে বলেছিলাম, ওদের ভালো হোক।

রাতে এখন ঘুমাতে যাই একতলার ঘরে
মেঝের উপর বিছানা পাতা, জ্যো‍‍‌ৎস্না এসে পড়ে
আমার পরে যে বোন ছিলো চোরাপথের বাঁকে
মিলিয়ে গেছে, জানি না আজ কার সঙ্গে থাকে
আজ জুটেছে, কাল কী হবে? – কালের ঘরে শনি
আমি এখন এই পাড়ায় সেলাই দিদিমণি
তবু আগুন, বেণীমাধব, আগুন জ্বলে কই?
কেমন হবে, আমিও যদি নষ্ট মেয়ে হই?
তোমাকে শুধু তোমাকে চাই, পাবো?
পাই বা না পাই এক জীবনে তোমার কাছেই যাবো।

এই কবিতাটিকে গান হিসাবেই জানতাম । লোপামুদ্রার কণ্ঠে গানটি খুব ভালো লাগে। সেদিন একজন বলল এটাও নাকি একটা কবিতা । কিন্তু এটার কবি কে তাও জানিনা।

২৮৩জন ২৮৩জন
0 Shares

১৩টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

️️ 🍂️️ 💝 ️️ 🌟 🌺 💐 💥 🌻 🍄 🌹 💐 ⭐️ 🎉 🎊