প্রিয় শুভ্রনীল

সুরাইয়া পারভিন ৯ নভেম্বর ২০১৯, শনিবার, ০৯:০৮:৫৯পূর্বাহ্ন চিঠি ২০ মন্তব্য

প্রিয় শুভ্রনীল,

আশ্বিনের এই শেষ বিকেলে খুব করে মনে পড়ছে তোমায়।মনে পড়ছে তোমার সাথে কাটানো প্রত্যেকটি বিকেলের কথা।অনেক দূরে থেকেও আমরা থেকেছি একে অপরের খুব কাছে।স্পর্শে বাইরে থেকেও থেকেছি একে অপরের শরীরে লেপ্টে।থেকেছি নিঃশ্বাসের খুব কাছে। অনুভবে তোমার নিঃশ্বাস আমার নিঃশ্বাসের সাথে মিলে মিশে-আমাদের শিহরিত করেছে প্রতিদিন।
২৪৩ কিমি দূরত্ব যেনো দমে রাখতে পারেনি-আমাদের ছুঁয়ে থাকার অনুভূতিকে।

হঠাৎই তুমি না বলে কয়ে অন্তর্ধান হয়ে গেলে। একবারও মনে হয়নি তোমার অনুপস্থিতিতে কতোটা শূন্য হয়ে যেতে পারি আমি? কতোটা ফ্যাকাসে হয়ে যেতে পারে তোমাকে নিয়ে সাজানো আমার পৃথিবী?যেনো হঠাৎ এই দূরত্বটা খুব প্রয়োজন ছিলো!

দূরে থেকে যদি ভালো থাকা যায়
তবে তাই থেকো প্রিয়।
ভালোবাসার বাহনায় চাইবো না-
কখনো কাছে আসো।
ষোলো বছরের বালিকা নই আমি,
প্রিয়তমের শূন্যতায় তাই-
অস্থিরতা মানায় না আমার।
মানায় না অভিমানে গাল ফুলিয়ে থাকা।
তবুও কি অবুঝ মন মানতে পারে প্রিয়তমের শূন্যতা?
মানতে পারে হঠাৎ মিলিয়ে যাওয়া?

যাই হোক অনেক কথা লিখে ফেললাম।জানি আমি তোমায় লেখার মতো যোগ্য শব্দগুচ্ছ নেই আমার অভিধানে। তবুও কিছু বিক্ষিপ্ত এলোমেলো শব্দ সাজিয়ে লেখার চেষ্টা করেছি। এই লেখা তোমার দৃষ্টি আকর্ষণ করবে কি-না জানি না। জানি না তোমার আমার জন্য অস্থিরতা বাড়বে কি-না,খারাপ লাগবে কি না।

ইতি,

তোমার রোদ্দুর 

১১০জন ১জন
2 Shares

২০টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য