সূর্যমামা হেসে উঠেছে, চতুর্মাত্রিক ক্যানভাস জ্বলজ্বল করছে ,
চিকচিক করছে বালুকাবেলা।
শারীরবৃত্তীয় জারণ-বিজারণে ভূমিষ্ঠ জীবনদায়ী অক্সিজেন;
স্বপ্ন-আশা-কামনায় বেঁচে উঠবে জীবনের জয়গান।
সুখ-বারতা পৌঁছে যাবে দ্বারে দ্বারে;
প্রাণের স্পন্দন জেগে উঠবে হংসযুগলে;
সন্তরণে ঝিলের জলে খেলাচ্ছলে বলবে কথা ফিসফিসিয়ে।
প্রজাপতি, ঘাসফড়িং নাচবে ঘাস-শিশির,পুষ্পরেণুতে;
কৈশোর হাসবে মেঠো-পথে, বন-বাঁদাড়ে।

সূর্যস্নানে নিমগ্ন অনিল পরশ বুলাবে তনু-মনে;
বিধিনিষেধের প্রাচীর ডিঙ্গিয়ে-
ফুলেরা ঝরে পড়বে মনুষ্য কপোল ছুঁয়ে;
কূজনে সুর-মূর্ছনায় বাতায়ন খুলে-
অসীমে দৃষ্টি পড়ে রবে কারো অপেক্ষার রাগ-রাগিনীতে।
নিঃস্পৃহ হৃদয়ে নৈরাশ্যের যবনিকা ,
ছন্দপতন ঘটায় ক্ষরণ-হাহাকার আর আত্ন-অহংকারের;
নব-দিগন্তে রৌদ্রজ্জ্বল ছটা গেয়ে উঠবে সাম্যের গান।

১১৯জন ৩জন
21 Shares

১৪টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য