প্রাগৈতিহাসিক প্রেম!

অপু রায়হান ১১ জুন ২০১৯, মঙ্গলবার, ১০:৩২:২৯অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি ২৪ মন্তব্য

চোখ বন্ধ করলেই ইদানীং এক জমিদার বাড়ি দেখি। সাদা প্রকান্ড বাড়ি, নীল রঙ করা কাঠের দরজা আর লোহার শিকের খাঁজ কাটা জানালা। ধবধবে সাদা রঙের পর্দায় আড়াল হয়ে থাকে ভেতরের স্বর্গ।

আমি চোখ বন্ধ করলেই দেখি সেই সাদা পর্দাটা উড়ছে, বাতাসের ঝাপ্টায় কিশোরীর অপরিপক্ক বেণির মত ছন্দে ছন্দে দুলছে। হঠাৎ এক ছটাক রোদ এসে তার মিষ্টি গালে লেপ্টে একাকার। রোদের ছোঁয়া তার গালে লাগাতে মনে হচ্ছে চৌরাস্তার মোড়ের পরিতোষ বাবুর হাতে মাত্র বানানো গরম মিষ্টি। ভাগ্য ভালো পরিতোষ বাবু আসে পাশে নেই থাকলে নির্ঘাত তোমার সুন্দর নামটা বদলে কোন এক মিষ্টির নাম দিয়ে দিতো, আর বাকি জীবন আমার মাছির মতন তোমার চারপাশে ভনভন করে কাটাতে হতো।

ইদানীং চোখ বন্ধ করলেই দেখি আমি বসে আছি, অপেক্ষায় আছি তার চোখ খোলার। বিছানার এ প্রান্ত থেকে ওপ্রান্তে গড়াগড়ি করে ক্লান্তি নিয়ে তার ঘুম ভাঙার। আমি দেখি, মুগ্ধ হয়ে দেখি তার ফোলা ফোলা চোখ, শান্ত শুষ্ক ঠোঁট, এলোমেলো চুল আর পর্দাহীন পুর্নিমা শরীর।

চোখ বন্ধ করলেই আমি দেখি এক বেগুনী শাড়ির রমনী, হাত ভর্তি সবুজ চুড়ি আর ভালবাসায় ভরে যাওয়া একটি ছোট্ট ঝুড়ি।
চোখ বন্ধ করলেই আমি দেখি, আমার চোখ আড়াল করে দিয়ে দাঁড়িয়েছে হাসনাহেনার সুগন্ধি মাখা কালো চুলের রমনী। চোখ চোখ রাখে সে, খিলখিল করে হাসে। পুরোনো জমিদার বাড়ির গিন্নির আলমারি আর আয়না কেঁপে উঠে পরিচিত শব্দে।

চোখ বন্ধ করলেই ইদানীং আমি শুনি সে নিচু গলায় বলছে চলো আজ হারিয়ে যায় দুচোখ যেদিকে যায়।

৫৯১জন ৪১৪জন
15 Shares

২৪টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য