প্রথম দেখার স্মৃতি।

মিথুন ৩ জুলাই ২০১৪, বৃহস্পতিবার, ০৯:০৩:৩১পূর্বাহ্ন একান্ত অনুভূতি ২১ মন্তব্য

সেকেন্ড চলবে সেকেন্ডের মতোই, কিন্তু কি করে কয়েকটি ঘন্টা সেকেন্ডের মতো কেটে গেলো সে এক বিস্ময় । খাতাকলমে লিখে রাখতে ভুলে গিয়েছিলাম, কতো কি যে ভেবেছিলাম জিজ্ঞেস করবো সব ভুলে গিয়েছি। পুরুষের সমাজে যেখানে বখাটে ছিনতাইকারীদের তাণ্ডব, সেখানে মেয়ে ছিনতাইকারীর মতো আমাকেই বারবার তার হাতটি দখল করতে হয়েছে। আমাকে দেখে পাথর হয়ে গিয়েছে নাকি পাথরের মধ্যে আমি ঢুকতে চাইছি এই চিন্তাও কিছুক্ষন ছিলো, ক্ষিদে সেতো পালানোরই কথা। বোকার মতো কিছুক্ষন শুধু একজন আরেকজনকে দেখে একটু একটু হেসেছি, কথাও পালিয়েছে গাট্টি বোঁচকা বেঁধে ।

অনেক ইচ্ছে থাকলেও দেয়া হয়নি তোমাকে, গুনিজনেরা আগেই বলে গিয়েছে, সাধ আর সাধ্যের মধ্যে অনেক নাকি তফাৎ। সোয়েটার দেয়ার ইচ্ছে কিন্তু অনেকটা সেরকমই ছিলো, তোমাকে জড়িয়ে রাখবার, তাই বলে গরমের মধ্যেও পড়ে দেখবে? তুমি অসুস্থ হবার দায়ভার আমার উপর চাপাতে চাও বুঝি? এমন করবেনা আর এই বকুনি দিলাম কিন্তু।

একা একা চা খাবার গল্প পরে জানতে হয়েছে ( চা কিন্তু দেখতে বেশ হয়েছে ), তবে কফি কিন্তু একসাথেই খেয়েছিলাম। এক কফি মগে নাকি দুই মগে তা কিন্তু বলা যাবেনা 🙂 দেখাটা হলো সন্ধ্যের দিকে। চারপাশে শহরের ঝকঝকে নানা রঙের আলোয় হেঁটে বেড়াচ্ছিলাম দুজন, এই সময় কোথাও সূর্য টা অদ্ভুত এক আলোয় অপেক্ষা করে আছে আমাদের জন্য হয়তো। দেখা হবে নিশ্চয়ই একদিন। ছোট ব্যাগ বইবার কস্ট নিতে চাচ্ছিলে বারবার কিন্তু দেবো কেনো? বেশি কস্ট বহনের জন্য তোমাকে রেডি করছি, ফিরে যে আসতে হবে স্বপ্ন।

চলে আসবার সময় আমার ভেতরের কান্না স্বপ্নের চোখে ছলছল হয়ে ডুবে ছিলো।

 

১১৫৫জন ১১৫০জন
0 Shares

২১টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ