প্রতীক্ষা

রাতুল ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৩, বৃহস্পতিবার, ১২:২৫:৩৩অপরাহ্ন কবিতা, সাহিত্য ১৬ মন্তব্য

অনেকটা পথ এভাবে হেঁটেছি।
ব্যর্থতা,অতঃপর একদল হতাশা,
কখনও বা নিস্তব্ধ নীরবতা,
শুন্যতা এবং কিছু গম্ভীর রসিকতা।
হাস্যকর আঁধারের মাঝে-
অপ্রীতিকর ক্রন্দন ধ্বনি।
অথবা, অপ্রীতিকর বাস্তবতায়-
অসাধারণ মুখাভিনয়।

মধ্যপথে একজন প্রীতিলতা,
একঝাক আনন্দ-মাখা স্বপ্নের দল,
হয়তো ক্ষণিক বাদেই মূর্খতার-
বিশাল ভাণ্ডার থেকে মুক্ত,
একদল শুকনের নির্মমতা।
ছিঁড়ে খাবার আগ্রাসন নিয়ে,
মৌন সূর্যের আলোতে,
ক্ষুধার্ত দৃষ্টি নিয়ে-
মৌন আকাশে বায়ু-ঝড় তোলা।
অতঃপর আবারও ব্যর্থতা।
একদল স্বপ্নের হাড্ডিসার কঙ্কাল-
বেওয়ারিশ হয়ে পরে থাকা।
সাথে একঝাক কুচকুচে কাল দাঁড়কাক,
আর তাদের কর্কশ চিৎকার।

ফিরে আসি তখন,
ফিরে আসি, গোধূলির মুগ্ধতায়।
কোন নিশাচর আমায় সঙ্গ দেয়।
হেঁটে চলি আমি,
নিদারুণ আঁধার-মাখা জগতে।
অসংখ্য হায়েনার আগমনে-
দল ভারি হয় আমার।
শুরু হয় শিকার খোঁজার তাড়না।
যদিও এ তাড়না শুধুই নাটকীয়তা,
তবুও আমি পথচ্যুত হই না।

একটা মুহূর্তে সূর্যালোকের ভয়ে-
অযথা কম্পিত হায়েনার দল,
আমায় দিয়ে মেটায় তাদের ক্ষুধা।
আবারও হাড্ডিসার কঙ্কাল হয়ে পরে থাকা,
এবং ক্ষণিকের সুখে মোড়ানো মৌনতা।
এবং অপেক্ষা, শুধুই অপেক্ষা।

১৯৫জন ১৯৫জন
0 Shares

১৬টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য