সোনেলা দিগন্তে জলসিড়ির ধারে

প্রতিরূপ

মুহম্মদ মাসুদ ৩০ জানুয়ারী ২০২০, বৃহস্পতিবার, ০৩:০০:০৪অপরাহ্ন কবিতা ৩০ মন্তব্য

কপাল সৌন্দর্যের মোড়ে লাল টিপ,
রূপে রূপে হিংসা হিংস্রতা।
হিংসার শোকদুঃখে দাউদাউ জ্বলি নিভি।

পরণে রূপ শতাব্দীর নীল রঙের শাড়ি,
সুন্দর সৌন্দর্যে ব্যাকুল ব্যাকুলতা।
মরি! সৌন্দর্যের ম-ম ঘ্রাণে হাসি কাশি।

ঠোঁটে গাঢ় গোলাপি লিপস্টিকের আবরণ,
চুম্বকীয় রসগোল্লা টলমল করে।
রসের রসাতলে তালবেতাল ডুবে ভাসি।

জানালায় খাঁজকাটা নকশার সোনালি আলো,
রোদ্দুর ছুঁয়ে যায় চিবুক তীরে।
বুকের ঢেউ চুলের সুবাসে মগ্ন নেশায় মাতি।

কুয়াশার মেঠোপথে শিশিরের লুকোচুরি।
তোমার পায়ের আঙুল তালুতে শিহরণ।
কুড়াল দিয়ে অনুভূতি কাঁটি।

গুড়ের চা-চুমুতে ঠোঁট জব্দ,
চায়ের শরীর বেয়ে উষ্ণতা নিরবধি। ধোঁয়াগুলো ছুঁয়েছে কলিজা অবধি।

ঠোঁটের ভেতর ঠোঁটে গল্পকাহিনী,
স্পর্শ আলিঙ্গনে পিষ্ট ভালোবাসা।
চোখের ভেতর চোখে অনুমতি দিবানিশি।

নদীর কাছে জল ছুঁইছুঁই মাঠ কিনবো,
মাঠের ভেতর ঝাঁ চকচকে উঠোন।
উঠোন জুড়ে তুমি-আমি দিন রাত্রি।

শাড়ির আঁচলে প্রেরণার প্রার্থনা,
প্রার্থনায় আঁজলা জলবিন্দুর রেষারেষি।
জলের ফোঁটায় ফোঁটায় লেখা ভালোবাসি।

প্রার্থনার বিনিয়োগ নাম প্রণয়-প্রেম,
বিশ্বাসী ভূমিষ্ট নাম সমর্পণ।
তুমি-আমি সমর্পিত চির বিশ্বাসী।

শুনতে পাচ্ছ?
আজ পাপেদের দিন, বেদনার পাপ।
তুমি-আমি আমরা ভগ্ন মনোরথের যাত্রী।

 

ছবিঃঃ সংগৃহীত

৪৪৩জন ৩০২জন
3 Shares

৩০টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

সাম্প্রতিক মন্তব্যসমূহ