পৌষ পাবণের পিঠা উৎসবের
সেদিন সকাল বেলায়
বিষন্ন বদনে মনে পড়ে যায়
বন্ধু তোমরা আছ কোথায় ?

বন্ধুরা সব এসেছিল
মাকে খুঁজে পায়।
ঘুম কাতুরে চোখটা খুলে
পিঠা খেতে চায়।

রাতের বেলা সব ছেলেরা
লাকড়ি নিয়ে আসে।
ধান কাটার ঐ জমিটাকে
চুলা বানিয়ে বসে।

আনন্দটা বাড়িয়ে যায়
সব ছেলেদের পরীক্ষা শেষে।
শীত মৌসুমের ভাপা পিঠা
প্রতিক্ষিত পৌষের মাসে।

কুয়াশা ঝড়া শীতের রাতে
তাসের আড্ডায় মেতে উঠে
হারিকেনের মিষ্টি আলোয়
খিড়া ক্ষেতের টঙের বাটে।

আকাশ থাকে চাঁদের প্রহর
মিটি তারায় জ্বলে আলো।
ভাপা পিঠায় মিঠাই হবে
খেজুর রসে আগুন জ্বালো।

আজ ও আমি খুঁজি ফিরি
হারানো সেই দিনগুলি।
প্রথম পিঠা আমায় দিয়ে
বলতো সবাই অঞ্জলী।

গরম পিঠা মুখে পুড়ে
মজা লুটে সবগুলি।
লজ্জায় আমি মুখ রাঙিয়ে
আজ ও খুঁজি সুখগুলি।

বন্ধু তোমরা আছো যেথায়
এসো সবাই আবার মিলি।
পৌষ পাবণের এমনি দিনে
মাকে দিই অঞ্জলী !

৬৭৬জন ১৮৬জন
39 Shares

২৬টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য