সোনেলা দিগন্তে জলসিড়ির ধারে

হে পুরুষ!

তোমরা যখন শাড়ির আঁচলের ফাঁকে ব্লাউজের উপর দিয়ে স্তনের উপর নজর দাও, আমি তখন সেই আঁচলে পরম আনন্দে মুখের ঘাম মোছার প্রশান্তি খুজে বেড়াই।

 

তোমরা যখন শাড়ির ফাঁকে কোমর এর ভাজ দেখায় ব্যস্ত, তখন আমি শাড়ির কুঁচির ভাজ গোনায় ব্যস্ত হয়ে যাই।

 

তোমরা শাড়ির মধ্যে ঘর্মাক্ত শরীরএ খুঁজে বেড়াও কামনা-বাসনা-লালসা! আর আমি সেখানে এক যোদ্ধার দেহ হতে বের হয়ে যাওয়া বিধ্বংসি ঝড় তুলতে সক্ষম এক শান্ত মহাসাগর দ্যাখতে পাই।

 

তোমাদের কাছে শাড়ি পড়া নারীর দেহ কামনার বস্তু, আর আমার কাছে সে নারীর দেহ মানে হলো “উপাসনা-ভক্তি- শ্রদ্ধা-ভালোবাসা-স্নেহ-মায়া-মমতা-মাতৃত্ব।”

আরও কত কি !

৩১৫জন ২১৩জন
25 Shares

১৫টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য