* তিন তারিখ আমার গায়ে হলুদ, চার তারিখ বিয়ে, পাঁচ তারিখ আমার জন্মদিন। কবে আসছেন যশোর?
** গায়ে হলুদের অনুষ্ঠান তো তিন তারিখ সন্ধ্যায়। আমি বিকেলের মধ্যে পৌছে যাবো।
* মানে কি? তিন তারিখ অনুষ্ঠান আর আপনি যাবেন তিন তারিখ? অনুষ্ঠানের আয়োজন, ষ্টেজ, সাজসজ্জা এসবের তদারকি কে করবে শুনি? এগুলো তো সব আপনারই করতে হবে। আমার বড় ভাই আছে নাকি?
** আচ্ছা আচ্ছা দুই তারিখ দুপুরের মধ্যেই পৌছাবো।(তার কথার মাঝের অধিকার, অভিমান, হতাশা আমাকে স্তব্ধ করে দিল। এতটা আপন কাছের একজন ভাবে আমাকে?)

দুই তারিখ বিকেলেই পৌঁছলাম যশোরে। প্রথম যাওয়া তাদের বাসায়। এত পরিচিত আমি তাদের ভাইবোন বাবা মার কাছে যে আমি তাদের পরিবারেরই একজন। একান্ত আপন হিসেবে মিশে গেলাম। পরিচয়ের পালা শেষে কিছুটা হালকা তদারকি, পরামর্শ প্রদান করে ঘুমুতে চলে গেলাম।

তিন তারিখ গায়ে হলুদ অনুষ্ঠানের পরে রাতে বেশ আড্ডাবাজি চলছে বাসায়। সম্মোধন নিয়ে বেশ মজার কাহিনী। যার গায়ে হলুদ পাপড়ি তো ভাইয়া ডাকে, ওর ছোট ভাই সিহাব ডাকে আংকেল, ছোট বোন পিউ ভাইয়া, ওর মাও ডাকে ভাইয়া, বাবা আবার আংকেল। একটা জগা খিচুড়ী সম্পর্কের মাঝে চলে এসেছি।
বাবা আর ছেলের আংকেল আমি। মা আর মেয়েদের ভাইয়া 🙂 দুই মেয়ে আর মা যেন বন্ধু তিনজন। পাপড়ি তো মাকে জিজ্ঞেসই করে বসলো আচ্ছা আম্মু, তুমি ভাইয়াকে ভাইয়া ডাকো কেন? রুম ভর্তি সবার হাহা হিহি হাসি। এই প্রশ্নের মধ্যে এসে পড়লেন পাপড়ির বাবা। হেঁসে দিলেন তিনিও। পিউ বাবাকে বলে, এখানে ছোটদের প্রবেশ নিষেধ, এক্ষুনি রুম ত্যাগ করো। বড়দের আলাপ চলছে। বাবা বাধ্য ছেলের মত রুম ত্যাগ করেন।
পাপড়ি হঠাৎ বলল, ভাইয়া পৃথুকে (আমার মেঝ ছেলে) পিউর পছন্দ হয়েছে, পিউ পৃথুকে বিয়ে করতে চায় 🙂 আপনি রাজী হলে আজকেই পাকা কথা হয়ে যাক। পিউ বলে, বলুন ভাইয়া প্লিজ, পৃথুকে বিয়ে করতে চাই, খুবই হ্যান্ডসাম ও। ওদের মাও বলে, আমি রাজী আছি ভাইয়া 🙂 আমি বললাম ওতো পিউর চেয়ে বয়সে ছোট, এটি সম্ভব কিভাবে? পিউ চরম উৎসাহে বলতে থাকে, কি যে বলেন ভাইয়া, রূপবান তার ১৮ বছর ছোট স্বামীকে কোলে করে বড় করেছে, আর পৃথু তো মাত্র তিন বছরের ছোট আমার, মাত্র একবছর পরেই সে ১৮ তে পড়বে 🙂   \|/
এমন বন্ধুত্বপূর্ণ পাগলাটে পরিবার আমি আর দেখিনি।

ধরা যাক পৃথু আর পিউর বিয়ে হল, এরপর ওদের এক মেয়ে হল নাম রাখা হল পুতুলী।
এই পুতুলীর আমি হব দাদু, একই সাথে মামা ( মায়ের ভাই )
পৃথুর আম্মু পিউর হবে শাশুড়ি আম্মা, আবার একই সাথে ভাবী
পুতুলী পিউর আম্মুকে ডাকবে নানি, একই সাথে ফুফু
আমি পৃথুর আব্বু, একই সাথে সম্মৃদ্ধি  ( স্ত্রীর বড় ভাই )
পিউ পৃথুর স্ত্রী, একই সাথে ফুফু ( বাবার বোন )

সম্পর্ক আর সম্মোধন আর কি কি হতে পারে, তা ভেবে আমার মাথাই আউলা ঝাউলা হয়ে গিয়েছে  ^:^

বিচিত্র মানুষ বিচিত্র পরিবার-২

৫০৯জন ৫০৮জন
0 Shares

৪৫টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ