নেশার নাম টিকটক

হালিমা আক্তার ৯ জুলাই ২০২২, শনিবার, ০৩:১৩:১০অপরাহ্ন সমসাময়িক ৮ মন্তব্য

পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রী। নাম তার সানজিদা। বয়স আর কতো। হয়তো দশ কিংবা এগারো। বর্তমান সময়ের কিশোর কিশোরীদের মতো নেশায় আসক্ত। এটা কোন মাদকের নেশা নয়। সস্তা জনপ্রিয়তা পাওয়ার নেশা। ফেসবুকের কল্যাণে ভাইরাল হওয়া।

এ নেশায় বুঁদ হয়ে আগামী প্রজন্ম চলছে সর্বনাশা পথে। অশ্লীল অঙ্গভঙ্গি। উদ্ভট নাচানাচি। হাসির নামে বাঁদরামি।সবই চলে টিকটিক নামক ভিডিওতে। মাঝে মাঝে দেখি মাঝ রাস্তায় দাঁড়িয়ে ভিডিও করছে। কি অদ্ভুত কান্ড কারখানা। দেখার কেউ নাই। বলার ও কেউ নাই। তাদের বাবা মা ও তাদের কিছু বলেন। পরোক্ষ ভাবে বরং উৎসাহ দেন। শুধু কিশোর কিশোরীরা নয়। অনেক শিক্ষিত মানুষ ও ফান করার নামে টিকটিক করছে। এটা সংস্কৃতির কোন অংশ জানা নাই।

সানজিদা নামের মেয়েটি গলায় ফাঁস দিয়ে টিকটিক করতে চেয়েছিলো। দুর্ভাগ্য বশত ফাঁস আটকে মৃত্যু বরণ করে। টিকটিক করতে স্মার্ট ফোন প্রয়োজন। একজন পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থীর কাছে স্মার্টফোন কেন থাকবে। সন্তান ভালো মন্দ বুঝতে পারে না। ওর বয়স কম। বাবা মা তো বুঝদার। তাঁরা কেন শিশুদের হাতে মোবাইল তুলে দিচ্ছেন। এর পরিমাণ যে কতটা ভয়াবহ, তা তো বুঝা যাচ্ছে। এধরনের ভিডিও বন্ধে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করা প্রয়োজন।

https://fb.watch/e9064vihQC/

 

১০৩জন ২৫জন
0 Shares

৮টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ