ছোট বোন করোনা ভ্যাকসিন দিবে। লকডাউন বলে সাথে গেলাম। দাঁড়িয়েছিলাম রাস্তার পাশে। পাশে দুজন ভদ্রলোক অপেক্ষা করছিলেন। হতে পারে তারা ভ্যাকসিন দিতে এসেছেন। তাদের একজন বলছেন।

আরে ভাই প্রতিদিন মনে হয় তিনশ’ টিকা দেয়া। তার মধ্যে মনে করেন ২০০/২৫০ মেসেজ আসে। এদের চেনা মুখ আছে না। এদের মেসেজ না আসলেও চলে। আবার কিছু তো এমনিতেই দিয়ে দেয়। পরিচিত হলে কি আর কিছু লাগে।

দাঁড়িয়ে আলাপ শুনছিলাম। নেতিবাচক কথাগুলো মস্তিষ্কে পেয়ে বসল। ভ্যাকসিন দিয়ে এক শ্রেণির মানুষ কত নেতিবাচক ঘটনা ছড়াচ্ছে। আমার জানামতে প্রথমে অনলাইনে এপ্লাই করতে হয়।টিকা কার্ড সংগ্রহ করতে হয়। মেসেজ আসলে পরবর্তীতে টিকা দিতে হয়। অথচ কিছু মানুষের ধারণা এখানেও নাকি পরিচিত অথবা টাকা দিয়ে কিছু করা যায়। কেন এ নেতিবাচক ভাবনা।

মস্তিষ্করে বুঝালাম এ  আর নতুন কি । কিছু মানুষ আছে যারা সবসময় সাদাকে কালো দেখতে পছন্দ করে। এদের ভাবনার মনোজগত কোনদিনই কি ভালো কিছু দেখতে পাবে না। খুব কষ্ট হয়। দেখা যাবে এদের মত মানুষই সুযোগের সদ্ব্যবহার করতে কখনো পিছপা হয়না। নেতিবাচক  ভাবনাগুলো তাদের  অন্তরে বাসা বেঁধে থাকে। এরা কবে আলোর পথে আসবে। মনের আলো যে খুব দরকার। এগিয়ে যেতে হলে এই আলোর পথ ধরে যেতে হবে।

৪৫০জন ৩৩৩জন
0 Shares

১৯টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ