নিশি প্রলাপ

খাদিজাতুল কুবরা ১২ ডিসেম্বর ২০২০, শনিবার, ০৭:১৪:৩৪অপরাহ্ন কবিতা ১৪ মন্তব্য

ঘুম আসছেনা,
মনে পড়ছে ফেলে আসা বহতা নদী তীর,
যেথায় বাজতো চেনা সুর সুমধুর!

সূর্যটা চুমে যেতো তটীনির ওষ্ঠোদয়,
রক্ত মাংসের যোযন দূরত্বে ও কি নিবিড় আলিঙ্গন
সেতো বলে বোঝানোর নয়!

চেয়ে থেকে অপলকে ঝরতো কথার ফুলঝুরি,
বাধ ভাঙা শিহরণের ঢেউ আছড়ে পড়তো সারি সারি!
চোখ দুটো আজও আছে, আছে দৃষ্টিতে শিলা পাথরের নুড়ি।

চর জাগা নদীতীরে এখন স্মৃতির শবদেহ পোড়ায়।
ছাইগুলো জমিয়ে রাখে নাব্যতার আশায়!
বুকপোড়া ছাই ভাসাতে বুকের নদী চাই!

এই কি সে নিয়তি?
যার পদাঘাতে আমরা ভ্রমচারী,
চক্রাকারে ঘুরি আর যাচি চাতকের বারি!
হুতাশনের আকাশে ওড়াই বিবর্ণ ঘুড়ি,
হাসির আড়ালে লুকাই যন্ত্রনার জলছবি আর শত
আহাজারি!

তমশা ঘেরা নৈঃশব্দের কাছে মুখোশ খসে পড়ে,
লৌকিকতার কাছে গো হারা হারি চুপিসারে।

অবশেষে নিশি প্রলাপ তন্দ্রার ঘোরে ঢুলু ঢুলু ঢোলে,
মুক্তি মেলে মাথা রেখে নিদ্রাদেবীর কোলে।

আরেকটি ভোরের আলো গায়ে মেখে,
শপথের মন্ত্র আওড়ে আশ্বাসের মালা গেঁথে!
মঞ্চস্থ নাটকের পূর্ব শর্ত __
সুখের রেশ মেশানো আভা চাই চোখে মুখে।

জীবনের জয়গান জয়ধ্বনিই সাফল্যের সোপান।
অদৃশ্য উহ্য থাকুক বুকের অলিন্দের শ্মশান।

এটাই জীবন কিংবা  জীবনের শ্বাশত  নিয়ম!
আহারে জীবন!
ঠাঁই পায়না অন্ধকার নিশীথের বিলাপ,
ভোরের আলোয় মিলিয়ে যায় বিগত রাতের সন্তাপ!

৪১৯জন ২৬৪জন
0 Shares

১৪টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য