নির্বাসিত কবিতা

স্বপ্নীল মেঘ ২৬ মে ২০২১, বুধবার, ০৩:১৩:০৪অপরাহ্ন কবিতা ১২ মন্তব্য

আমি শেষমেষ নির্বাসনে যেতে চাই! যাচ্ছিও বটে।
লোকালয়ের প্রবেশদ্বার দিয়ে শুরু করে শ্মশানের
রথযাত্রার অগ্নিকুণ্ড পেরিয়ে আজ আমি মুক্তমনা।
সমাজের দুর্গন্ধে প্রকৃতি যেখানে মরাপ্রায়, সেখানে
আমার উপস্থিতি নিছকই।

আকাশ হতে আজ বৃষ্টি নামতে ভয় পায়। কালো মেঘ
উচ্ছিষ্ট করেনা নীলে ঘেরা আবরন। অভিমানে ঘর
ছাড়া পাখিটিও ভুলে গেছে অতীতের চেনা পথ।
নিকষকালো রাত্রিতে পথহারা পথিক গন্তব্য খুঁজে নাহ,
কোথায় যেনো তার একটা অভিমান! এ অভিমানের
অর্থ নেই, শেষ নেই যেনো কেউই বাধ্য নয়।

পিচঢালা কংক্রিটের পথ বেয়ে, অপূর্ণ আবদারে মরে
যাওয়া মানুষটির গোর ছেড়ে এগুচ্ছি আমি নির্বাসনে।
গোটা নীল রঙের সমুদ্র পেরিয়ে ঘন সবুজ অরন্যে
আমার একটা ছোট্ট ঘর হবে। শিমুল গাছটি যেখানে
দাঁড়িয়ে ঠিক তার নিচে।
গোটা অরন্য শাসন করবো আমি! স্বাধীনতার জাগরন
বুকে পুষে আমি থেকে যাবো নির্বাসনের নির্মমতায়।

সমাজ? রাষ্ট্র? ফ্যামিলি? প্রেমিকা? কেউ পাবেনা খুঁজে!
আড়ালের নাগালে থেকেও কেউ আমাকে স্পর্শ
করতে পারবেনা। আমি আমার বিমূর্ত রূপের সাথে প্রেম
করবে সবুজ প্রকৃতি, মৃত শকুন কিংবা হিংস্র হিংসা।

তোমাদের বুকে বেয়নেট খুঁচিয়ে আমি নির্বাসনে যাচ্ছি।
ফিরবোনা আমি!  নিশ্চিহ্ন হয়ে না যাওয়ার আগে।
আকাশে আমার ঠাঁই হোক সন্ধাতারা বেশে তবুও তোমাদের সমাজ আমি ঘৃণা করি।

১৩৪জন ৩৭জন
0 Shares

১২টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

সাম্প্রতিক মন্তব্যসমূহ