নষ্টালজিক মেমোরি

ত্রিস্তান ২৪ নভেম্বর ২০১৯, রবিবার, ০৬:২৭:৫১অপরাহ্ন কবিতা ২৩ মন্তব্য

শহরের ভাঙ্গা প্রাচীর ঘেঁষে সাঁটানো লাল পোস্টার
তোর রক্তাক্ত ক্ষতবিক্ষত শরীরের মতোই অগোছালো-
সদ্য ঝড়ের শেষে এলোমেলো ঝাউ লতার মতোই চুলের বেনী
তাতে এক দলা থুতু ছিটিয়ে যায় বাউন্ডুলে যুবক ।।

অপ্সরী খুঁজে খুঁজে অবশেষে যে পথিক গন্তব্য হারায়
লোনা জলের তলদেশে ঢেউহীন মৃত যমুনায়-
সে কি কভু জানতে পেরেছিলো –
কত সহস্র নাবিকের জলজ পরিসমাপ্তি ঘটেছিলো এই মোহনায়।।

ত্রয়োদশীর রূপালী জোছনায় অবগাহন শেষে –
পূর্ণ্যার্থীর চেতনে কভু ফিরে আসে যদি, এ যে কোজাগরী নয়
তবে কি লক্ষ্মীর আত্মায় জন্মে ভক্তের প্রতি অনুরাগ ?
কিছু অবয়ব ছাড়িয়ে যায় অভিকর্ষের প্রবল আকর্ষণ ।।

অবাঞ্ছিত সময়ের হাত ধরে যে এসেছিলো, অদ্যাবধি –
তার বিতর্কিত যৌনাবেদন; বিদগ্ধ শহরের গলিতে গলিতে সাঁটা,
আঙ্গুলের ফাঁকে নিকোটিনের জলন্ত কুন্ডলী চেপে
খুক খুক কাশি শেষে এক দলা থুতু ছিটিয়ে যায় আরাধ্য প্রেমিক।।

দিনশেষে হুইস্কির পেয়ালায় মুখ লুকিয়ে খোঁজে-
হয়তো কোন চেনা মুখ, অশরীরী আত্মা কিংবা প্রেতাত্মা হয়ে,
যদি কভু ফিরে আসে বৈকালীন দিগন্তের কার্ণিশ বেয়ে-
এই অবেলায়,
এক অনবদ্য ঘৃণার গাঁথুনিতে আমি তার এপিটাফ লিখে যাই।।

৩৮৩জন ২৪৯জন
30 Shares

২৩টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য